গোবিন্দগঞ্জে ট্রাকসহ এস্কেভেটর মেশিন আটকের পাঁচদিন পর জরিমানা

গোবিন্দগঞ্জে ট্রাকসহ এস্কেভেটর মেশিন আটকের পাঁচদিন পর জরিমানা



 : অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রাম থেকে গত ২২ এপ্রিল একটি ট্রাক ও একটি এস্কেভেটর মেশিন আটক করে উপজেলা প্রশাসন। 

আটকের পাঁচদিন পর গতকাল বুধবার দুপুরে ট্রাক ও এস্কেভেটর মেশিনের মালিককে এক লাখ টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমান আদালত। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আরিফ হোসেন এই জরিমানা আদায় করেন। 

উপজেলা প্রশাসনের একটি সূত্র জানায়, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় করতোয়া নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছিল। অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২২ এপ্রিল রাত সাড়ে তিনটার দিকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আরিফ হোসেন। তিনি উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের রঘুনাথপুর এলাকা থেকে অবৈধ বালু বহনকালে একটি ড্রাম ট্রাক ও একটি এস্কেভেটর মেশিন আটক করেন। পরে ট্রাক ও এস্কেভেটর ঘটনাস্থলে স্থানীয় ফুলবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনিসুর রহমানের জিম্মায় রেখে আসেন। এরপর থেকে চেয়ারম্যান গ্রাম পুলিশের মাধ্যমে এসব পাহারা দিয়ে রাখেন। 

আটকের পাঁচদিন পর গতকাল বুধবার বিকেলে ট্রাক ও এস্কেভেটর মেশিনের মালিকের এক লাখ টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমান আদালত। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আরিফ হোসেন এই জরিমানা আদায় করেন। 

জেলা আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম বাবু বলেন, মোবাইল কোর্ট (ভ্রাম্যমান আদালত) আইন ২০০৯ এর ৬ ধারা অনুযায়ী সংঘটিত অপরাধ তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে আমলে গ্রহণ করে অভিযুক্ত ব্যক্তির স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে দÐ আরোপ করতে হবে। এক্ষেত্রে ঘটনাস্থলের বাইরে বা ঘটনা ঘটার পাঁচদিন পরে মোবাইল কোর্টের সুযোগ নেই। এতে মোবাইল কোর্ট (ভ্রাম্যমান আদালত) আইনের ব্যত্যয় ঘটেছে। 

এ প্র সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মো. আরিফ হোসেন বলেন, ট্রাক ও এস্কেভেটর মেশিন জব্দ করে রাখা হয়েছিল। মালিককে যথাসময়ে না পাওয়ার কারণে জরিমানা করতে বিলম্ব হয়েছে। 



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।