রহস্যজনক কারণে বন্ধ হয়নি বাঁশখালীর জালিয়াখালী খাল ধ্বংসের মহোউৎসব

রহস্যজনক কারণে বন্ধ হয়নি বাঁশখালীর জালিয়াখালী খাল ধ্বংসের মহোউৎসব
জালিয়াখালী খালের পশ্চিম মনকিচর ১ নম্বর ওয়ার্ড মনকিচর আবুবকর মাদরাসা সংলগ্ন সাঁকোর গোঁড়া থেকে খাল খনন করে মাটি বিক্রির মহোৎসব চলছে।



 : বাঁশখালী উপজেলার শিলক‚প ইউনিয়নের পশ্চিম মনকিচর ১ নম্বর ও ২নম্বর ওয়ার্ড সংলগ্ন জালিয়াখালী খালের দীর্ঘ ৩ কিলোমিটার অংশ জুড়ে সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ভ‚মিদস্যু সিন্ডিকেট চক্রের নিয়ন্ত্রণে চলছে অবৈধ ভাবে খালের মাটি খনন ও বিক্রির কাজ।

যেখানে দীর্ঘদিন ধরে জালিয়াখালী জলকদর খাল ধ্বংস করে অবৈধভাবে খাল খনন ও মাটি বিক্রির কাজ চলমান থাকলেও রহস্য জনক কারণে বন্ধ হয়নি ধ্বংসের মহোৎসব।

প্রাপ্ত তথ্যে সরেজমিনে গিয়ে ও স্থানীয়দের মাধ্যমে জানা যায়, উপজেলার শিলক‚প ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত পশ্চিম মনকিচর ১ নম্বর ও ২ নম্বর ওয়ার্ড সংলগ্ন দীর্ঘ ৩ কিলোমিটার জুড়ে বিস্তৃত খালের মাটি অবৈধভাবে খনন করে মাটি বিক্রির মহোৎসবে মেতে উঠছে স্থানীয় ভ‚মিদস্যু চক্র।

এ সকল ভ‚মিদস্যু সিন্ডিকেট চক্রের আয়োজনে স্কেভেটর বসিয়ে প্রতিদিনই ৮ থেকে ১০ টি অবৈধ যান ট্রাক্টর ভিড়িয়ে কিশোর চাকলকদের বেপরোয়া গতিতে চলাচলে চরম ভোগান্তি পড়ছে পথচারী সহ স্থানীয়রা।

জালিয়াখালী খাল থেকে খননকৃত সকল মাঠি যাচ্ছে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়। এসব মাটি দিয়ে বসতভিটে ভরাট সহ ইট ভাটায় পোড়ানো হচ্ছে। উল্লেখিত স্থানে দীর্ঘদিন যাবত মাটি খনন করা হলেও যথাযথ কর্তৃপক্ষের পক্ষে থেকে নেওয়া হয়নি তেমন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ।

রহস্য জনক কারণে বন্ধ হয়নি জলকদর খালের মাটি খননের কাজও। এসব জায়গায় অনেকটাই নির্বিঘেœ চলছে মাটি খনন কাজের মহোৎসব। ফলে অতি মুনাফালোভী ও ভ‚মিদস্যুদের এমন কর্মকান্ডে পরিবেশের চরম ক্ষতির ঝুঁকি রয়েছে বলে মনে করছেন স্থানীয় ও সচেতন মহল। এতে করে খালের গতিবেগ পরিবর্তনসহ নানা বিপর্যয়ের আশংকা প্রকাশ করছে সচেতন মহল।

প্রভাবশালী এ ভ‚মিদস্যুদের হরহামেশাই অবৈধভাবে খাল খনন করে মাটি বিক্রির জন্য সরকারি ব্যায়ে নির্মিত যে সকল রাস্তা ব্যবহার করা হচ্ছে সেসব রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

অবৈধ যানবাহনের অদক্ষ চালকদের বেপরোয়া গতির ফলে সাধারণ মানুষের চলাচল অনুপযোগী হওয়া সহ যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দ‚র্ঘটনা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন পথচারীর সাথে কথা হলে তারা জানান, শিলক‚প ইউনিয়নের পশ্চিম মনকিচর ¯øুইসগেই সংলগ্ন এলাকা হতে গন্ডামার ব্রিজ সংলগ্ন দীর্ঘ ৩ কিলোমিটার জুড়ে জালিয়াখালী খালের মাটি কেটে ইটের ভাটা, বাসা বাড়ি, গর্ত ভরাটের কাজে বিক্রি হচ্ছে। কাজেই এ সড়ক সহ উপজেলার বিভিন্ন সড়কে অবৈধ ট্রাক চাকলদের বেপরোয়া গতিতে চলাচলে সড়কে সৃষ্টি হচ্ছে চরম বিশৃঙ্খলা। ধুলাবালি আর ভোগান্তি।

অবৈধভাবে সরকারী খাল খনন করে মাটি বিক্রি বন্ধ করে পরিবেশ বিপর্যয় রক্ষার্থে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কঠোর আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানান এলাকার সাধারণ মানুষ।

শিলক‚প ইউপির চেয়ারম্যান মুহাম্মদ মহসিন বলেন, স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে আমি স্থানীয় মেম্বার ও দফাদার পাঠিয়ে অবৈধভাবে মাটি না কাটার জন্য নিষেধ করলেও তারা নিষেধ অমান্য করে মাটি কাটছে।

চট্টগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী প্রকাশন চাকমা কে এ বিষয়ে জানতে চেয়ে মুঠোফোনে বেশকয়েকবার যোগাযোগ করতে চাইলেও ফোনে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।