রৌমারী দাঁতভাঙ্গা বাজারে ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় দূর্ভোগ

রৌমারী দাঁতভাঙ্গা বাজারে ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় দূর্ভোগ



 : কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা হাট-বাজারে ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় দূর্ভোগে পড়েছে জনসাধারন। বাজারটি সংস্কারের দাবী জানিছেন এলাকাবাসি। 


রবিবার ওই বাজারে সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, দীর্ঘ দিন থেকে হাট বাজারটির কোন সংস্কার করা হয়নি। দাঁতভাঙ্গা টু রৌমারী মহাসড়কের তুলনায় বাজারটি নিচু হওয়ায় সামান্য বৃষ্টিতে বাজারের অলিতেগলিতে পানি জমে। কর্দমাক্তের সৃষ্টি হয়। ফলে কৃষকর্ াতাদের পণ্য বাজারে বিত্রয় করতে পারছে না। অপর দিকে ত্রেতা ও বিক্রেতাসহ নানা পেশাজীবি মানুষ যাতায়াতে চরম দূর্ভোগ পোহাচ্ছে। এছাড়াও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার অভাবে দূর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ছে। এতে পরিবেশ মারাত্মক ভাবে দূষিত হচ্ছে। দূর্গন্ধের কারনে স্কুল শিক্ষার্থী ও পথচারীরা নাকে রুমাল দিয়ে তাদের প্রয়োজনীয় কাজ শেষ করছে। দোকান মালিকরা দূর্গন্ধ ও জলাবদ্ধতায় থাকতে পারছে না দোকানে। হাটবাজার উন্নয়নের জন্য ২০% অর্থ বরাদ্দ থাকলেও কোন কাজ করা হয়নি।

দাঁতভাঙ্গা বাজারের সবজি ব্যবসায়ী বাহার আলী অভিযোগ করে বলেন, বৃষ্টি হলেই পানি জমে থাকে। গাছের পাতাসহ নানান ময়লা জমে থাকায় ক্রেতারা আসতে পারে না । এতে আমার বেচাকেনা কমে গেছে। আমরা এই দূর্ভোগ থেকে বাচতে চাই।

পথচারি জাহাংগীর আলম জানান, প্রতিবছর হাট ইজারা দেওয়া হয় ঠিকই কিন্তু বাজারের তো উন্নতি হয় না। বাজারের গলিগুলেতে ড্রেন দিলে পানি জমবে না।

দাঁতভাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান এসএম রেজাউল করিম বলেন, বাজারটিতে মাটি ভরাট ও পানি নিস্কাশনের জন্য ড্রেন দেওয়া জরুরী। দাঁতভাঙ্গা হাট-বাজার ইজারাদার আমির হামজা জানান, সবেমাত্র হাটটি আমি নিয়েছি। বাজারে মাটি ভরাট ও ড্রেন দেওয়া দরকার। উপজেলা প্রশাসনের কাছে আমার জোরদাবী হাটটির অবস্থা সরেজমিনে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিলে মানুষের কষ্ট কমে যাবে। উপজেলা সহকারি কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী অফিসার আশরাফুল আলম রাসেল (ভার:) বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই এবং দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।