নন্দীগ্রামে বিয়ে না দেওয়ায় কিশোরের আত্মহত্যা

নন্দীগ্রামে বিয়ে না দেওয়ায় কিশোরের আত্মহত্যা



 : বগুড়ার নন্দীগ্রামে বিয়ে না দেওয়ায় অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে সজিব আহমেদ (১৬) নামের এক কিশোর। 


বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে উপজেলার থালতা-মাঝগ্রাম ইউনিয়নের বাঘদহ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সজিব ওই গ্রামের রমজান আলীর ছেলে। থালতা-মাঝগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতিন এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 

স্থানীয় ও পরিবার সুত্রে জানা গেছে, বেশ কয়েকদিন ধরে ওই কিশোর বিয়ে এবং বিদেশে যাওয়ার জন্য বায়না করে। এতে পরিবারের কেউ রাজি না থাকায় অভিমান করে সবার অজান্তে বাড়ির দোতলায় শয়ন ঘরের তীরের সঙ্গে লুঙ্গির কাপড় পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। লুঙ্গির কাপড় ছিঁড়ে ওই কিশোর মাটিতে পড়ে গেলে তার মা টের পায়। পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।  

এ ব্যাপারে কুমিড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ (ওসি) মো. মুস্তাফিজুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে ফোর্সসহ তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বিষয়টির তদন্ত শেষে আইনগত প্রক্রয়া নেওয়া হবে। এ ঘটনায় ইউডি মামলা দায়ের হবে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়নি। মরদেহ ঘটনাস্থলেই ছিল।


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।