উল্লাপাড়ায় গ্রীল কেটে ঘরে ঢুকে জিম্মি করে মালামাল লুট

উল্লাপাড়ায় গ্রীলকেটে ঘরে ঢুকে জিম্মি করে মালামাল লুট



 : উল্লাপাড়ার সলপ ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক শহিদুল ইসলামের বাড়িতে ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। শনিবার গভীর রাতে শহিদুলের শেখপাড়া গ্রামের বাড়িতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতরা দেশীয় অস্ত্রের মুখে বাড়ির লোকজনকে এক ঘরে বেঁধে আটক রেখে প্রায় ৬ ভরি স্বর্ণ, লক্ষাধিক নগদ টাকা ও মালামাল লুট করে নিয়ে পালিয়ে যায়। 

জরুরি সাহায্য পেতে ট্রিপুল নাইনে ফোন করায় উল্লাপাড়া থানা পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। রোববার বেলা ১টার দিকে ডাকাতদের ছিনিয়ে নেওয়া একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

উল্লাপাড়ার সলপ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক শহিদুল ইসলাম অভিযাগ করেন, ঘটনার রাতে তিনি বাড়িতে ছিলেন না। তার পরিবারের লোকজন ছিল। রাত ২টা ৩০ মিনিটের দিকে ১০/১৫ জন ডাকাত ড্যাগার, বড় ছুরি, হাসুয়া ও লোহার রড নিয়ে তাদের বাড়িতে ঢোকে। প্রথমে তার মায়ের ঘরের জানালার গ্রিল কেটে ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে শহিদুলের ভাস্তি জামাই স্কুল শিক্ষক আলাউদ্দিনকে মারধর করে। ডাকাতরা তার হাত বেঁধে বাড়ির একটি ঘরের রুমে ঢুকায়। এর পর বাড়িতে থাকা তার ২ ভাস্তি, ১ ভাবি সহ ৪/৫ জনকে একই ঘরে আটক রেখে ডাকাতদের কয়েকজন তাদের গলায় ছোরা ধরে জিম্মি করে। ঘটনার সময় সবার কাছ থেকে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়া হয়। পরে কয়েকজন ডাকাত ঘরের স্টিল আলমারি ও অপর আসবাবপত্র ভেঙ্গে ৬/৭ ভরি সোনার গহনা এবং নগদ প্রায় ১ লাখ টাকা এবং দামী বিছানার চাদর ও শাড়ি নিয়ে পালিয়ে যায়। ডাকাতদের একজনের মুখ কালো কাপড় দিয়ে বাঁধা ছিল বলে পরিবারের সদস্যরা শহিদুলকে জানিয়েছেন। ডাকাতদল চলে যাওয়ার পর ঘরের মধ্যে আটক থাকা লোকজনের চিৎকারে পার্শ্ববর্তী লোকজন এগিয়ে এসে সবাইকে উদ্ধার করে। শহিদুল ইসলাম আরো জানান, সব মিলিয়ে তাদের প্রায় ৮ লাখ টাকার সামগ্রী লুট করে ডাকাতেরা। ডাকাতরা চলে যাওয়ার পর পার্শ্ববর্তী লোকজন ট্রিপুল নাইনে ফোন করলে উল্লাপাড়া থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে।

এব্যাপার উল্লাপাড়া মডেল থানার সঙ্গে যোগাযোগ করলে উপ-পরিদর্শক সাহেব গনি জানান, ফোন পেয়ে তিনি তার পুলিশ বাহিনী নিয়ে গভীর রাতেই ঘটনাস্থলে যান এবং ঘরবাড়ি পরিদর্শন করেন। তবে ডাকাতদের ছিনিয়ে নেওয়া ফোনে কথা বলার একটি ক্লু পুলিশ পেয়েছে। এই ক্লু ধরে পুলিশ উল্লাপাড়া উপজলার মৈত্র বড়হর পশ্চিমপাড়া গ্রামের ব্যবসায়ী নুর ইসলাম ও তার মামাতো ভাইয়ের বড়হর বাজারের কসমেট্রিক দোকান থেকে ডাকাতদের ছিনিয়ে নেওয়া একটি অপ্প কোম্পানির এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোনের সেট রোববার বেলা ১টার দিকে উদ্ধার করেছে। নুর ইসলাম একজন হাঁসের বাচ্চা বিক্রতা। তিনি রোববার সকালে উপজেলার মোহনপুর বাজারের পূর্ব পাশে অবস্থিত একটি ব্রিজের কাছে ওই মোবাইল সেটটি পড়ে পান বলে জানান। বাড়ি নিয়ে এসে তার মামাতো ভাইয়ের দোকানে রাখেন।পরে পুলিশ ছিনিয়ে নেওয়া মোবাইল সেটে ফোন দিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার করে। ইতোমধ্যই সেই ক্লু ধরে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। দ্রুত এই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটক করা সম্ভব হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন এসআই গনি। ডাকাতির ঘটনার ব্যাপারে শহিদুল ইসলাম থানায় একটি এজাহার দিয়েছেন বলে উল্লেখ করেন এই উপ-পরিদর্শক।


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।