সরিষাবাড়ীতে সাংবাদিক মাসুদুর রহমান এর সংবাদ সম্মেলন

সরিষাবাড়ীতে সাংবাদিক মাসুদুর রহমান এর সংবাদ সম্মেলন



: জামালপুর সরিষাবাড়ীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন দৈনিক জনবাণী পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার  ও দৈনিক আলোচিত জামালপুর পত্রিকার নিজস্ব প্রতিবেদক মাসুদুর রহমান। সরিষাবাড়ী প্রেস ক্লাবের হল প্রাঙ্গনে ৩১ জুলাই বেলা ১২ টায় সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। 

জানা যায়, গত ২৮-৭-২০২২ ইং রোজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০ঃঃ০০ ঘটিকায় বাড়ী থেকে বের হয়ে পৌরসভার সম্মুখে অবস্থা করিয়া পেশাগত দায়িত্ব পালন কালে এলাকার কয়েকজন ব্যক্তি নিয়ে সকাল ১১ ঘটিকায় সরিষাবাড়ী পৌরসভার ভিতর সোনালী ব্যাংক এর দক্ষিণ পার্শে মেয়র কতৃক নির্মিত গোল ঘরে বসে প্রায় দেড় ঘন্টা আভ্যন্তরীণ বিষয়ে আলোচনা শেষ করে দুপুর আনুমানিক ১ টা থেকে ২ঃ৩ ০ ঘটিকা পর্যন্ত থানায় অবস্থান করেন মাসুদুর রহমান।  সন্ধ্যায় উপজেলার কোনাবাড়ী গ্রামের শামছুল হক এর স্ত্রী মনোয়ারা বেগম  এর ছেলে মুস্তাফিজুর রহমান এর স্ত্রী সোনিয়া আক্তার (২১) ২,৮০,০০০ টাকা ও ১ ভরি স্বর্ণের গহনা পত্র নিয়ে বাড়ী থেকে পালিয়ে তার বাবার বাড়ীতে চলে যায় বলে সোনিয়া আক্তার (২১), জিয়াউল হক, তৌকির আহমেদ হাসুকে বিবাদী করে সরিষাবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে।বিষয়টি নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করার জন্য তথ্য সংগ্রহ শুরু করিলে বড়শরা গ্রামের রাজ মাহমুদের ছেলে আবুল হোসেন ও জুলারখুপি গ্রামের বেলালের ছেলে তৌকির আহমেদ হাসু সংবাদ প্রকাশে বাধাগ্রস্থ করার নানা অপচেষ্টা করে । সেই সাথে আবুল হোসেন ও তার সহযোগী তৌকির আহমেদ হাসু ইন্ধন দিয়ে তাদের ব্যক্তিগত আক্রোশ হাসিল করার লক্ষ্যে বড়বাড়িয়া গ্রামের জিয়াউল হকের মেয়ে সোনিয়া আক্তার নামক এক মেয়েকে দিয়ে ২৮ জুলাই রাতে সাংবাদিক মাসুদুর রহমানকে ৫ নং বিবাদী করে সরিষাবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করান। রাতে মহাদান ইউনিয়নের রাজ মাহমুদের ছেলে আবুল হোসেন ও  জুলারখুপি গ্রামের বেলালের ছেলে হাসু কোনাবাড়ী গ্রামের শামছুল হক এর স্ত্রী মনোয়ারা বেগমকে হাসুর নাম বাদ দিয়ে মাসুদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করার জন্য চাপ প্রয়োগ করে।   পরবর্তীতে আব্দুর রাজ্জাক নামক ব্যবহৃত ফেসবুক আইডি থেকে সেই সোনিয়ার অভিযোগের কপি পোস্ট করা হয়। পরদিন সকালে ২৯/৭/২০২২ ইং রোজ শুক্রবার সকালে সরিষাবাড়ী থানায় মিথ্যা অভিযোগ দেওয়ার কারনে  আবুল ও তার সহযোগী হাসু এবং বাদী সোনিয়া আক্তার সহ সকল স্বাক্ষীদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করেন মাসুদুর রহমান । তৌকির আহমেদ  হাসু ও আবুল হোসেন বিভিন্ন মানুষকে মিথ্যা মামলা ও বিভিন্ন মামলার  স্বাক্ষী হয়ে হয়রানী করে থাকে। ৩০ জুলাই শনিবার আবুল হোসেন মনোয়ারাকে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করার জন্য মুঠোফোনে যোগাযোগ করে। কিন্তু মনোয়ারা তার কথায় রাজী হননি। পরে বিষয়টি নিয়ে মাসুদুর রহমান রবিবার বেলা ১২ টায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মিথ্যা অভিযোগের প্রতিবাদ জানান। 

 এ বিষয়ে মাসুদুর রহমান বলেন, দৈনিক নবতানের নির্বাহী সম্পাদক পরিচয় দানকারী আবুল হোসেন ও তার সহযোগী হাসু উভয়ে নিজেদের সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন অপকর্ম তথা হলুদ সাংবাদিকতায় লিপ্ত রয়েছে।  যা বর্ণনা দিতে গেলে ১০/২০ পাতায় শেষ করা যাবে না ।  আর তা ছাড়া এ জেলায় নবতান পত্রিকার কোন অনুমোদন নেই। বড়বাড়িয়া জিয়াউল হকের মেয়ে  সোনিয়া আক্তার এর দেওয়া থানায় মিথ্যা অভিযোগ ও আবুল হোসেন এবং তার সহযোগীর বিভিন্ন কর্মকান্ডের প্রতিবাদ  জানিয়ে প্রশাসনের নিকট সঠিক বিচার দাবী করছি।

এ বিষয়ে সরিষাবাড়ী প্রেস ক্লাবের সভাপতি সোলায়মান হোসেন হরেক বলেন, সাংবাদিক মাসুদ সরিষাবাড়ী প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দুঃখ জনক। 


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।