ইসলামপুরে প্রবেশপত্র না আসায় অংশ নিতে পারেনি ২৫ পরীক্ষার্থী

 : জামালপুরের  ইসলামপুরে শান্তিপূর্ণ ভাবে এইচএসসি পরীক্ষা হলেও প্রবেশপত্র না আসায় অংশ নিতে পারেনি ২৫ পরীক্ষার্থী। এ নিয়ে চরম উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে।

ইসলামপুরে প্রবেশপত্র না আসায় অংশ নিতে পারেনি ২৫ পরীক্ষার্থী



 জানা গেছে, উপজেলায় ৬টি কেন্দ্রের ২৯৯০জন পরীক্ষার্থী এবার অংশ নিলেও উপজেলার শিমুলতলা টেকনিক্যাল এন্ড বি.এম কলেজের ২৫ পরীক্ষার্থীর প্রবেশপত্র না আসায় পরীক্ষা দিতে পারেনি।


 ভোক্তভোগী পরীক্ষার্থীরা তাদের প্রবেশ পত্র নিতে গেলে  প্রবেশ পত্র বোর্ড থেকে না আসায় শিক্ষকরা তালবাহনা করেন। 


পরীক্ষার্থীরা উত্তেজিত হয়ে গতরাতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করে। এ সময় পরীক্ষার্থীরা অধ্যক্ষ,লাইব্রেরিয়ান কাম কম্পিউটার ও অফিস সহকারীকে দায়ী করে ইসলামপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।


ভোক্তভুগি পরীক্ষার্থীদের দাবী,কলেজের অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন ও সহকারী গ্রন্থাগারিক মোর্শেদা আক্তারের যোগসাজশে যথা সময়ে ফরম ফিলাপে জন প্রতি ৫৫০০ টাকা টাকা করে জমা দেই। টাকা জমা নিয়েও সঠিক সময়ে তারা আমাদের ফরম পূরণ করেননি। সকাল হলেই আমাদের পরীক্ষা। এখন আমরা কি করব।ফরম পূরণের সময় আমরা কিন্তু আমাদের প্রবেশ পত্র নিতে এসে জানতে পারি ফরম পূরণ হয়নি। আমরা পরীক্ষা দিতে পারছিনা। আমাদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত। আমরা পরীক্ষায় অংশ গ্রহন সহ দোষীদের বিচার চাই।


এ ব্যাপারে অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন জানান, কলেজের প্রভাষক মোর্শেদা আক্তার তাদের ফরম পূরণের টাকা নিয়েছে। কিন্তু যথা সময়ে তাদের ফরম পূরণ করেনি। এর দায় আমি নিতে পারব না।  তবে শিক্ষাবোর্ডের সাথে কথা বলেছি বোর্ডে যাচ্ছি দেখি কি হয়।


উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানভীর হাসান রুমান জানান, ফরম পূরণের জন্য প্রিন্সিপাল মাইকিং করেছিল। পিন্সিপালকে বোর্ড পাঠিয়েছি দেখি কি হয়। তবে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।