সহবাসের পর নারীদের যা করতে হয়!

🕧Published on:

: নারী’র গোপনাঙ্গে’র সুস্থতা বজায় রাখা জরুরি। যদিও এ বিষয়ে অনেক বেশি ভুল ধা’রণা ছড়িয়ে আছে।  যা অনুস’রণ ক’রলে গোপনাঙ্গে’র ক্ষতি হতে পারে।

সহবাসের পর নারীদের যা করতে হয়!



 তেমন একটি ভুল ধা’রণা হলো, বিশেষ পদ্ধতিতে গোপনাঙ্গে’র ভেত’র পরিষ্কা’র করা। গোপনাঙ্গে’র ভেত’র পরিষ্কারে’র প্’রয়োজন হয় না, তবে বহিঃস্থ ত্বক পরিষ্কা’র করা যাবে। যৌন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদে’র মতে, সহবাসে’র প’র গোপনাঙ্গে’র যত্ন নেয়া’র প্’রয়োজন আছে- তবে ভুল পদক্ষেপ নেয়া স্বাস্থ্যে’র জন্য মারাত্মক ক্ষতিক’র। এখানে সহবাসে’র প’র ক’রণীয় উল্লেখ করা হলো।


এক. বাথরুমে যান এবং গোপনাঙ্গ পরিষ্কা’র করুন। লস অ্যাঞ্জেলেস অবস্টেট্রিসিয়ানস অ্যান্ড গাইনিকোলজিস্টসে’র স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ অ্যালিসন হিল এবং ইভন বন জানান, গোপনাঙ্গে’র পিএইচ ব্যালেন্স বজায় রাখা এবং মূত্’রনালী সংক্’রমণে’র ঝুঁকি কমানো’র সহজ উপায় হচ্ছে,  সহবাসে’র প’র প্’রস্রাব সেরে নেওয়া, যা’র ফলে জীবাণু বে’র হয়ে যাবে। জীবাণু দূ’র করা না গেলে মূত্রাশয় বা মূত্’রনালিতে সংক্’রমণ সৃষ্টি ক’রতে পারে। 


দুই. ডা. হিল বলেছেন, ভুল পদ্ধতিতে ওয়াইপ করা যাবে না। এটি ক’রলেও সংক্’রমণে’র ঝুঁকি বাড়তে পারে। যদি রেক্টামে’র জীবাণু গোপনাঙ্গে প্’রবেশ ঠেকাতে চান, তাহলে সামনে থেকে পেছনে ওয়াইপ করুন।


তিন. মৃদুভাবে পরিষ্কা’র করুন: গোপনাঙ্গ সুস্থ রাখতে মৃদুভাবে পরিষ্কারে’রও প্’রয়োজন হতে পারে।  ভালোভাবে কুসুম গ’রম পানি ও মিল্ড সোপ দিয়ে মৃদুভাবে পরিষ্কা’র করে নিতে পারেন। কোনো সুগন্ধি সাবান ব্যবহা’র ক’রবেন না।


চা’র. সহবাসে’র প’র প্’রস্রাব সেরে নেয়া জরুরি। এই সময় কুসুম গ’রম পানি-মাইল্ড সোপ দিয়ে ধোয়া’র প’র পরিষ্কা’র তোয়ালে দিয়ে মুছে নিয়ে ঢিলেঢালা অন্তর্বাস প’রতে পরামর্শ দিয়েছেন। কা’রণ গোপনাঙ্গ ভেজা থাকলে ছত্রাক সংক্’রমণে’র প্’রবণতা বৃদ্ধি পায়। টাইট অন্তর্বাস পরিহা’র করুন, যেমন- নাইলনে’র অন্তর্বাস। এ’র পরিবর্তে কটনে’র অন্তর্বাস ব্যবহা’র ক’রতে পারেন।


যুক্তরাষ্ট্রে’র ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ডায়াবেটিস অ্যান্ড ডাইজেস্টিভ অ্যান্ড কিডনি ডিজিজেসে’র প্’রতিবেদনে বলা হয়েছে, টাইট ফিটিং অন্তর্বাস প’রলে গোপনাঙ্গে’র আর্দ্’রতা বেড়ে গিয়ে জীবাণু’র বংশবিস্তা’র বৃদ্ধি পায়।


আরো যা ক’রতে হবে

>> পানি পান করুন। শরীরে’র সতেজতা ফিরে পাবেন।

>> দই খান। সহবাস প’রবর্তীতে স্বাস্থ্যক’র খাবা’র খেতে পারেন, বিশেষত প্রোবায়োটিক-সমৃদ্ধ খাবা’র। একটি সেরা প্রোবায়োটিক-সমৃদ্ধ খাবা’র হলো দই।



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।