[১২২৫] রাজিবপুরে রাস্তা নিয়ে দুই গ্রুপে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে আহত-২০

S M Ashraful Azom
0

 : একটি চলাচলের রাস্তা নিয়ে বিরোধের জেরে দু'’দল গ্রামবাসির রক্তক্ষয়ী  সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে রাজিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছে।

রাজিবপুরে রাস্তা নিয়ে দুই গ্রুপে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে আহত-২০



শুক্রবার সকালে রাজিবপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের জহির মন্ডলপাড়া এবং জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার ডাংধরা ইউনিয়নের জোয়ানের চর গ্রামের সীমান্তবর্তী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানা গেছে, দুই বছর আগে কাদের মিয়া স্বেচ্ছায় গ্রামবাসিদের চলাচলের সুবিধার জন্য একটি রান্তা নির্মাণ করে দেন। রাস্তাটি নির্মাণ করার সময় স্থানীয় কবির হোসেন নামের এক ব্যক্তি বিরোধিতা করে আসছে এবং রাস্তার জন্য জমিদাতা কাদেও মিয়াকে ভুল বুঝিয়ে রাস্তাটি বন্ধ করার পায়তারা করে আসছিল।

শুক্রবার সকালে কবির গ্রæপের যোগসাজশে পরিকল্পিত ভাবে দেশীয় অস্ত্র ও  লাঠিসোটা নিয়ে রাস্তাটিতে  অবস্থান করে ভেঙ্গে ফেলার জন্য হুকুম দেয়। কাদের মিয়া-কবিরের প্রলোভনে পড়ে রাস্তাটি কোঁদাল দিয়ে কাটা শুরু করে। এসময় রাস্তাটিতে গ্রামবাসি বাধা দিতে গেলে কবির হোসেন গ্রæপের লোকজনের সাথে বাকবিতন্ডতার এক পর্যায় মারপিট শুরু হয়। মারপিটে দু’'পক্ষের লোকজনই গুরুতর আহত হয়। 

আহতদের মধ্যে কবিরের অনুসারী'রা হলেন শহিদুল (৩৫), লোকমান (৪৫) নবীজল (৪৩) শাহিন (৩০) আন্জু খাতুন (৪০), কবির (৪০), সাইদুর (২১) এবং অপর দিকে তাহের গ্রæপের অনুসারীরা হলেন, আলমঙ্গীর (৩২),  আজাদ (৪০), মাইদুল (৩০), আবু বক্কর (৪২), আকিদুল (৩০) ও জয়নাল আবেদীন (৫৫)।

কবির হোসেন বলেন, আমার জমিতে শ্রমিক নিয়ে আমন ধান রোপনের জন্য জমি প্রস্তুত করছিলাম এসময় রাস্তা নিয়ে কাদের মিয়ার লোকজন আমাদেরকে ঘেরাও করে আমার লোকজনের ওপর এলোপাতারি মারপিট করে। এসময় আমার সেচপাম্প ও পাওয়ার টিলার জোরপূর্বক নিয়ে যায় হামলাকারীরা।

আব্দুল কাদের মিয়ার ছেলে খোকনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমার জমির উপর দিয়ে দুই বছর আগে যাতায়াতের জন্য আমার বাবাকে ভয়ভীতি দেখাইয়া রাস্তা তৈরী করে নেয় গ্রমবাসিরা। আজ আমার জমিতে আমন ধানরোপনের জন্য রাস্তার আইল ছাঁটছিলাম তারা আমাকে মারপিট করেছে।

 রাজিবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাহারুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনাস্থানটি দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার আওতাধীন হওয়ায় দেওয়ানগঞ্জ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

দেওয়ানগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শ্যামল চ›ন্দ্র ধর বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। থানায় কেউ এখন পর্যন্ত অভিযোগ করেননি। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

ট্যাগস

Post a Comment

0Comments

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।

Post a Comment (0)

#buttons=(Ok, Go it!) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Know about Cookies
Ok, Go it!
To Top