প্রেস রিলিস: সিপিআর সনদ অর্জন করলো “বাংলাদেশ ব্লাড সার্ভিস”
প্রেস রিলিস: সিপিআর সনদ অর্জন করলো “বাংলাদেশ ব্লাড সার্ভিস”


সেবা ডেস্ক:  ১৮ ডিসেম্বর রাত ৮ টায়  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর.সি মজুমদার অডিটোরিয়ামে সুনামগঞ্জের গ্রো ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে কার্ডিও-পালমনারি রিসোসিয়েশন (সিপিআর) কর্মশালায় বাংলাদেশের স্বেচ্ছাসেবী নাগরিক সংগঠন “বাংলাদেশ ব্লাড সার্ভিস” এর কার্ডিও-পালমনারি রিসোসিয়েশন (সিপিআর) সনদ অর্জন করে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর.সি মজুমদার অডিটোরিয়ামে সুনামগঞ্জের গ্রো ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে ১৮ ডিসেম্বর রাত ০৮টায় কার্ডিও-পালমনারি রিসোসিয়েশন (সিপিআর) কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত কর্মশালায় সভাপত্বি করেন বাংলাদেশের সাবেক রেল পথ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী জনাব সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের সুযোগ্যপুত্র ও গ্রো ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. সৌমেন সেনগুপ্ত। প্রধান ট্রেনার হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কানাডার ম্যাকমাস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ডা. তাপস মন্ডল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্ডিয়াক সার্জারির প্রধান অধ্যাপক ডা. অসিত বরণ অধিকারী, অ্যানেসথেসিওলজিস্ট বিভাগের ডা. মো মমতাজুল হাসান, বিইআরডিইএম’র মহাপরিচালক ডা. নাজমুন নাহার এবং ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিশেজ্ঞ ড. রুজিনা সুলতানা।

বাংলাদেশ ব্লাড সার্ভিসের পক্ষ হতে সিপিআর কর্মশালার সনদপত্র গ্রহণ করেন অত্র সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য রক্তযোদ্ধা জনাব জয়নাল আবেদীন মিন্টু। বাংলাদেশ ব্লাড সার্ভিসের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জনাব মাহফুজ রহমান সিপিআর সম্পর্কে বলেন, একজন মানুষের হার্টএ্যার্টাকের ফলে হার্টের ফাংশন বন্ধ হয়ে যায় এবং মানুষটার আর কোন রেসপন্স থাকে না তখন তাঁর হার্টকে পুনরায় সচল করার জন্য প্রাথমিক চিকিৎসাটাই হচ্ছে কার্ডিও-পালমনারি রিসোসিয়েশন। এটাকে সংক্ষেপে সিপিআর বলা হয়।

প্রোগ্রামটি সফল করার জন্য সার্বিকভাবে সহযোগীতা করার জন্য বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানায়, দেশ ফাউন্ডেশন’র প্রেসিডেন্ট জনাব  মোঃ মাসুক হাসান, মহিউদ্দিন তোহা, ফয়সাল হোসেন , রাসিব আহম্মেদ, আনাস, পংকজ দেব, প্রমুখ। সেই সাথে আরও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি সকল আর্গানাইজেশনকে যারা মনবতার ডাকে সাড়া দিয়ে সিপিআর ট্রেইনিংটা সাফল্যভাবে গ্রহণ করেছেন।

, ,