বিভিন্ন আসনের সীমানা পুনর্বিন্যাসের ওপর আপিলের শুনানি শুরু

বিভিন্ন আসনের সীমানা পুনর্বিন্যাসের ওপর আপিলের শুনানি শুরু
সেবা ডেস্ক: - জাতীয় সংসদের বিভিন্ন আসনের সীমানা পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত আপিলের ওপর শনিবার থেকে শুনানি শুরু হয়েছে। শনিবার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে এই শুনানি শুরু হয়। সকালে নীলফামারী ৩, রংপুর ১ ও ৩, কুড়িগ্রাম ৪ আসনের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

শুনানি শেষে কুড়িগ্রাম-৪ আসনের সংসদ সদস্য রুহুল আমিন সাংবাদিকদের জানান, ‘নির্বাচন কমিশন ঘোষিত খসড়া গেজেটে তিনি আপত্তি জানিয়েছেন। কারন, খসড়া সীমানাটি ভৌগোলিক কারণে অযৌক্তিক। এটা কার্যকর হলে আমার নির্বাচনী এলাকার ভোটারদের চার ঘণ্টা নদীপথ পাড়ি দিয়ে সংসদ সদস্যদের কাছে যেতে হবে।

এদিকে সীমানার গেজেট বহাল রাখার দাবি করে কুড়িগ্রামের চিলমারি উপজেলা চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীর বিক্রম বলেন, ‘স্বাধীনতার পর থেকে দশম সংসদ নির্বাচনের আগ পর্যন্ত সংসদীয় আসন যেরকম ছিল, কমিশনের খসড়ায় তাই আছে।

দশম সংসদ নির্বাচনের আগে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে সংসদীয় আসনের সীমানা পরিবর্তন করা হয়েছে। কমিশন যে খসড়া করেছে আমরা তাকে স্বাগত জানাই। আমরা চাই, সীমানা যেন এভাবেই বাস্তবায়ন হয়।’ কুড়িগ্রাম-৪ আসনের খসড়ার পক্ষে ১২টি ও বিপক্ষে ২৮টি আবেদন পড়েছে।

শনিবার সকালে চারটি সংসদীয় আসনের পর দুপুরে কমিশন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১, সিরাজগঞ্জ-১ ও ২, পাবনা-১ ও ২ আসনের শুনানি করে। এছাড়া বিকেলে পিরোজপুর-১, ২ ও ৩ আসনের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্বিন্যাসের জন্য নির্বাচন কমিশন গত ১৪ মার্চ ৪০টি আসনের সীমানায় পরিবর্তন এনে ৩শ’ আসনের খসড়া গেজেট আকারে প্রকাশ করে। এর পক্ষে বিপক্ষে দাবি ও আপত্তি গ্রহণ করে কমিশন।

এতে আপত্তি জানিয়ে ৪০৭টি এবং ইসির পক্ষ সমর্থন করে ২২৪টি আবেদন জমা পড়ে। এসব আবেদনের উপর আজ থেকে শুনানি শুরু হয়। আগামী ২৩ এপ্রিল খুলনা, সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগ, ২৪ এপ্রিল চট্টগ্রাম এবং ২৫ এপ্রিল ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন আসনের শুনানি হবে। শুনানি শেষে ৩০ এপ্রিল চূড়ান্ত গেজেট প্রকাশের কথা রয়েছে।

শুনানিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) খান মো. নূরুল হুদা এবং নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, বেগম কবিতা খানম ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

, , ,
themeforestthemeforest

ছবি কথা বলে