তারেক জিয়াকে দেশে ফেরানোর প্রক্রিয়া
তারেক জিয়াকে দেশে ফেরানোর প্রক্রিয়া

Tareq Zia's process of returning to the country

সেবা ডেস্ক: অসুস্থতার বাহানায় চিকিৎসার উদ্দেশ্যে অনেক বছর যাবৎ লন্ডনে পলাতক আছে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ওরফে তারেক জিয়া। কিন্তু আইনের হাত থেকে পালিয়ে আর কতদিন বিচার বিভাগকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে যাবে তারেক জিয়া? বিখ্যাত বাংলা সিনেমা ‘পালাবি কোথায়?’এর কথাই মনে পরে যায় যখন তারেককে দেশে ফিরিয়ে আনতে আন্তর্জাতিক তৎপরতা গ্রহণ করে সরকার।

দেশে ফিরে গেলে রাজনৈতিকভাবে অত্যাচার ও জুলুমের শিকার হবে এই মিথ্যে কারণ দেখিয়ে স্বপরিবারে ব্রিটেনে আশ্রয় এবং স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি পায় তারেক জিয়া। তাহলে কি আইনের হাতকে কাঁচকলা দেখিয়ে ধরা ছোঁয়ার বাইরেই থেকে যাবে কুখ্যাত এই দুর্নীতিবাজ? সেটা যাতে কোনোভাবেই না হয় সে উদ্দেশ্যে ইতোমধ্যেই যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বৈঠক করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।


আরও পড়ুন>>কোটা আন্দোলনকারীদের নিয়ে গুজব: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার থেকে সাবধান!
যুক্তরাজ্যের আসামি প্রত্যর্পণ আইন ২০০৩-এ বলা আছে, কোনো দেশ তার অভিযুক্ত আসামিদের ফিরিয়ে নিতে পারে। এটি বিবেচনায় নিয়ে এখন যুক্তরাজ্যকে এমএলএটি সই করার প্রস্তাব দেওয়ার কথা ভাবছে বাংলাদেশ।


গত ফেব্রুয়ারিতে বৃটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনের বাংলাদেশ সফরের সময় তারেক রহমানকে দেশে ফেরানোর প্রসঙ্গটি উত্থাপন করেছিল সরকার । তখন বরিস জনসন ২০০৩ সালের আসামি প্রত্যর্পণ আইনের আওতায় যুক্তরাজ্যকে চিঠি লেখার পরামর্শ দেন সরকারকে। মূলত তার কথার সূত্র ধরে এ বিষয়ে নতুন করে চিঠি পাঠানো হয়।


আরও পড়ুন>>বিশ্বখ্যাত টাইম ম্যাগাজিনের ১শত প্রভাবশালীর তালিকায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী
চিঠির দাবি দাওয়া বিবেচনা করে বাংলাদেশের সাথে এমএলএটি সই করবে যুক্তরাজ্য। আর এ চুক্তি সম্পাদনের মাধ্যমে তারেককে আইনের কাঠগড়ায় দাঁড় করাবে সরকার।

তাহলে কবে নাগাদ চিহ্নিত এই দুর্নীতিবাজকে জেলে দেখতে পাবে দেশের জনগণ?


আরও পড়ুন>>আসছে রমজান মাসে দ্রব্যমূল্য ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখবে সরকার
জনসাধারণের এমন প্রশ্নের উত্তরে জানা যায়, এ বছরই সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে তারেক জিয়া’কে দেশে ফেরাতে চায় সরকার।

দিনমজুর, নির্মাণ শ্রমিক, গার্মেন্টস কর্মী ও ১৬ কোটি বাঙালির কষ্টার্জিত অর্থ দুর্নীতির মাধ্যমে ভোগকারীকে ক্ষমা করলে বাংলার ইতিহাস হবে কলংকিত। তাই তারেককে ফেরানোই হতে পারে জাতির কলংক মোচনের একমাত্র উপায়।



,