আগের মতো নেই দেশের মাদক স্পটগুলো
আগের মতো নেই দেশের মাদক স্পটগুলো

আগের মতো নেই দেশের মাদক স্পটগুলো

সেবা ডেস্ক: জীবন ধ্বংশকারী ও  সর্বনাশা মাদকের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের প্রশাসন জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করার ফলে দেশের মাদক স্পটগুলোর চেহারা বদলাতে শুরু করেছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চলছে মাদক কেনা বেচার স্পটে আইন শৃঙ্খলা বাহীনির অভিযান। কোটি টাকার মাদকদ্রব্য নিয়ে ধরা পড়ছে মাদক ব্যবসায়ী ও চোরা কারবারি। আটক এড়াতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে বন্দুকযুদ্ধে লিপ্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছে অনেক মাদক ব্যবসায়ী। ইয়াবা, ফেনসিডিল, গাজা, হেরোইনের মত ভয়াবহ মাদকের বেচা কেনার স্পটগুলোতে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে মাদকের ব্যবসা।

মাদক বিরোধী অভিযান শুরু হবার পর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১০ হাজার মাদক পাচারকারী, ব্যবসায়ী এবং সেবনকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন জেলা শহরের আনাচে কানাচে চলছে এ মাদক বিরোধী অভিযান। মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত শীর্ষ সন্ত্রাসী, গডফাদার, ব্যবসায়ী ও সেবনকারী কাউকেই ছাড় দেয়া হচ্ছে না এ অভিযানে। সন্দেহভাজন হিসেবে কাউকে মাদক স্পট থেকে ধরা হলে যাচাই বাছাই করে নিরপরাধ ব্যক্তিদেরকে ছেড়ে দেয়া হচ্ছে, আর অপরাধীদেরকে ম্যাজিস্ট্রেট দ্বারা মাদকদ্রব্য নির্মূল আইনে দ্রুত শাস্তি প্রদান করা হচ্ছে। সারা দেশে এমন ধরপাকর অবস্থা বিদ্যমান থাকার ফলে অনেক মাদক ব্যবসায়ী ও পাচারকারীরা পালিয়ে বেড়াচ্ছে ।

মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর অভিযানের ফলে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মাদকের ভয়াবহতা হ্রাস পেতে শুরু করেছে। সাংবাদিকদের অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে যে, রাজধানীর অলিতে গলিতে ইয়াবার মরণনেশা ছড়িয়ে দেয়া ব্যবসায়ীদের এখন আর দেখা যাচ্ছে না। গাজা বিক্রির পরিচিত স্পটগুলোতেও গাজা বিক্রি বন্ধ রয়েছে। আর ফেন্সিডিল পাচারকারীদের আটক করায় কমে গেছে এর সহজলভ্যতা।

সমাজ থেকে মাদক নির্মূলে প্রশাসনের এমন অভিযান অব্যাহত থাকলে মাদকের অভিশাপমুক্ত একটি সুস্থ, সুন্দর ও স্বাভাবিক সমাজ পাবে আগামীর ভবিষ্যৎ, একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে এটাই কাম্য।