SebaBanner

আজ*

হোম
`জাতিসংঘের মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশ সফর : কি বার্তা পেল বাংলাদেশ

`জাতিসংঘের মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশ সফর : কি বার্তা পেল বাংলাদেশ
দুদিনের সফরে বাংলাদেশে এসেছিলেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম। জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ছাড়াও বাংলাদেশ সফরে রয়েছেন আন্তর্জাতিক রেড ক্রস কমিটির (আইসিআরসি) প্রেসিডেন্ট পিটার মাউরা। জাতিসংঘের মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতের সঙ্গে বৈঠকে তাঁরা দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন নিয়ে কথা বলেন।
একই সময়ে কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংস্থা ও সংগঠনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সফরকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে । তাদের সফরে সর্বাধিক গুরুত্ব পেয়েছে রোহিঙ্গা সঙ্কট। তারা দুইজনই কক্সবাজারের বিভিন্ন শরণার্থী শিবির ঘুরে দেখেন। রোহিঙ্গাদেরকে আশ্রয় দিয়ে তাদের জীবন বাঁচানোর জন্য জাতিসংঘের মহাসচিব এবং বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা এবং ধন্যবাদ জানান। আন্তোনিও গুতেরেস জাতিসংঘ মহাসচিব পদে দায়িত্ব নেওয়ার বেশ আগে থেকেই রোহিঙ্গা সংকট সম্পর্কে জানতেন। তিনি ২০০৫ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক হাইকমিশনার (ইউএনএইচসিআর) হিসেবে রোহিঙ্গাসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে শরণার্থী সংকট নিয়ে কাজ করেছেন। গত বছরের ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নতুন করে নিধনযজ্ঞ শুরুর পর পরিস্থিতি তুলে ধরে ২ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ মহাসচিব জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে নজিরবিহীন এক চিঠি লেখেন। রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিব সোচ্চার রয়েছেন।
বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম বাংলাদেশের বর্তমান উন্নতি দেখে খুবই অভিভূত। তিনি বলেন যে, বাংলাদেশ অল্প সময়ে বেশ উন্নতি করেছে। দেশ বর্তমানে অন্যান্য দেশের অনুকরণীয়। প্রেসিডেন্ট আরও বলেন যে দেশের উন্নয়নে সব সময়ে পাশে থাকবে বিশ্বব্যাংকের। এ বছর বাংলাদেশকে ৩ বিলিয়ন ডলার ( প্রায় ২৪ হাজার কোটি টাকা ) ঋণ দিবে বিশ্বব্যাংক। একক দেশ হিসেবে বিশ্বব্যাংক এবার বাংলাদেশকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সহায়তা দিচ্ছে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী এবং দেশের জনগণের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।
মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিলেও বাংলাদেশের পক্ষে তাদের ভরণপোষণ ও যত দিন এখানে অবস্থান করবেন তত দিন সুস্থ জীবন নিশ্চিত করা কষ্টকর হয়ে পড়েছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে রোহিঙ্গাদের সহায়তায় তাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বনেতাদের আহ্বান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর আহ্বানে সাড়া দিয়ে এরই মধ্যে বিভিন্ন দেশ ও দাতা সংস্থা এগিয়ে এসেছে।
দুই বিশিষ্ট ব্যাক্তির সফরে মিয়ানমারকে যারা সমর্থন করে আসছেন তাদের উপর চাপ সৃষ্টি হবে বলে ধারণা করছেন অনেকে এবং দ্রুত রোহিঙ্গা সংকট নিরসন হবে বলে আশাবাদী সকলে।

,