মৃত ব্যক্তির নামে পল্লীবিদ্যুতের মামলা

মৃত ব্যক্তির নামে পল্লীবিদ্যুতের মামলা

জামালপুর সংবাদদাতা: জামালপুরের সরিষাবাড়ির ওয়াজেদ আলী ২০০৯ সালের ১ ডিসেম্বর মারা যান। অথচ চলতি বছরের ১০অক্টোবর মৃত ওয়াজেদ আলী মামলার আসামী হলেন। সরিষাবাড়ি পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম মোস্তফা কামাল বাদি হয়ে মামলাটি (সিআর মামলা নং ৭৪৯৮/১৮) দায়ের করেন। ওয়াজেদ আলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ; তিনি অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে ৫৭ হাজার ৮১০ টাকার বিদ্যুৎ ব্যবহার করেছেন। ওয়াজেদ আলী সরিষাবাড়ি বয়ড়া গ্রামের বাসিন্দা।

মামলার বিবরণে প্রকাশ, বকেয়া পল্লীবিদ্যুতের লাইনম্যান ফেরদৌস এবং ওমর ফারুক বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের জন্য বারবার তাগিদ দেয়া সত্বেও বিল পরিশোধ করেন নি। অবশেষে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্নের সময় ওয়াজেদ আলীসহ এলাকার বহু লোক উপস্থিত ছিলেন। মৃত ওয়াজেদ আলীর ছেলে আবুল কালাম আজাদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমরা এলাকায় থাকি না। বছরে দুই একবার এলাকায় আসি। পিতার জীবদ্দশায় ২২ ফেব্রুয়ারী/১৫ সেচ সংযোগ বিচ্ছিন্নের ফি জমা দিয়ে লাইন বন্ধ রেখেছেন। 

সেসময়ে ডিজিএম আক্তারুজ্জামানের স্বাক্ষরিত কাগজপত্রও দেন।এতেই শেষনয়, এজিএম লিখিত দিয়ে ৫ কেভিএ দুটি ট্রান্সফরমার, একটি বৈদ্যুতিক মিটারসহ বিদ্যুৎ লাইনের তারসহ অফিসে নিয়ে গেছেন। পিতার মৃত্যুর ১০ বছর পর কিভাবে মামলা হলো জানি না। বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যানকেও জানানো হয়েছে।ইউপি চেয়ারম্যান শামসুদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন-এটি পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহক হয়রানির নজির। ডিজিএম মোস্তফা কামালের এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করেন নি।

⇘সংবাদদাতা: সেবা ডেস্ক

, , ,

0 comments

Comments Please

themeforestthemeforest

ছবি কথা বলে