বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বকশীগঞ্জে কলেজ ছাত্রী ধর্ষন

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বকশীগঞ্জে কলেজ ছাত্রী ধর্ষন, ধর্ষক পলাতক


সেবা ডেস্ক: জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলা বগারচর ইউপি’র টাঙ্গারীপাড়া গ্রামের শরিফ উদ্দিনের ছেলে মাহমুদুল হাসান সবুজের নামে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে উঠেছে। 

এ ঘটনায় সোমবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে বকশীগঞ্জ থানায় অভিযোগ দিয়েছে ধর্ষিতা কলেজ ছাত্রী। অভিযুক্ত মাহমুদুল হাসান সবুজ পলাতক।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রাজধানীতে ঢাকায় অবস্থিত একটি মহিলা কলেজে অধ্যায়নরত ওই শিক্ষার্থীর সাথে ফেসবুকে পরিচয় হয় মাহমুদুল হাসান সবুজের। 

প্রথমে প্রেম ভালোবাসা, পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় ২ বছর যাবত ধর্ষন করে আসছে সবুজ। বিয়ের জন্য চাপ দিলে বিয়ের নাটক সাজিয়ে এক হুজুর দ্বারা বিয়ে কাজ সম্পন্ন করে। 

চলতি মাসের ৯ তারিখ ওই কলেজ ছাত্রী বিবাহ রেজিষ্ট্র করার জন্য চাপ সৃষ্টি করলে মাহমুদুল হাসান সবুজ পলিয়ে যায়।

পরে স্ত্রীর দাবী নিয়ে মাহমুদুল হাসান সবুজের বাড়ীতে গেলে সবুজের বোন জামাই নুরুল আমিন, তার চাচাতো ভাই দেলোয়ার হোসেন ও বাবা শরিফ উদ্দিন কলেজ ছাত্রীকে মারধোর করে। পরে ৯৯৯ এ ফোন দেয় ধর্ষনের শিকার কলেজ ছাত্রী। ফোন পেয়ে সোমবার রাত ১০টার দিকে পুলিশ টাঙ্গারীপাড়া গ্রাম থেকে উদ্ধার করে বকশীগঞ্জ থানায় নিয়ে আসলে বকশীগঞ্জ থানা পুলেশে একটি অভিযোগ দায়ের করে কলেজ ছাত্রী।

বকশীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাজু আহাম্মেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ধর্ষকসহ অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।  



শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।

Dara Computer Laptops