রৌমারীতে শতাধিক একর জমি জবর দখল করে মাছ চাষের চেষ্টা

রৌমারীতে শতাধিক একর জমি জবর দখল করে মাছ চাষের চেষ্টা




শফিকুল ইসলাম: কৃষকের শতাধীক একর জমি জবর  দখল করে জোরপূর্বক উম্মুক্ত পানিতে মাছ চাষের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন প্রায় পাঁচ শত ভুক্তভোগী পরিবার। 

ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার ভিটাবাড়ির উত্তরপাড়া ও জিগ্নিকান্দি গ্রাম এলাকায়।

অভিযোগ ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শৌলমারী ইউনিয়নের টালুয়ারচর, বাউশমারী, রৌমারী ইউনিয়নের জিগ্নিকান্দি, ভিটাবাড়ি ও উত্তরপাড়া গ্রামের মধ্যস্থল নি¤œাঞ্চল হওয়ায় প্রতিবছর প্রচুর পরিমাণ দেশীয় প্রজাতির মাছ পাওয়া যায়। বর্ষা মৌসুমে ওই এলাকার মানুষের কোন কাজ না থাকায় তারা বিভিন্ন উপায়ে  মাছ ধরে নিজেদের চাহিদা পূরণ করে এবং বাজারে বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। ইতিমধ্যে শহিবর রহমান, আছকের আলী ও আব্দুর রশিদসহ একটি স্বার্থান্বেষি মহল ওই উম্মুক্ত পানিতে বিস্তর এলাকাজুরে জাল দিয়ে ঘিরে মাছ চাষের চেষ্টা করছে। এতে জমির মালিকগণ বাধা দিলে তাদেরকে ভয়ভীতিসহ হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন মুহুর্তে সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। 

অভিযোগকারি আদির আলী জানান, আমাদের জমিতে প্রতি বছর বন্যার পানির সাথে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ আসে। সে সময় এলাকার শতশত মানুষ মাছ ধরে নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে এবং বাজারে বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করি। একটি কুচক্রি মহল জোর পূর্বক মাছ চাষ করার পায়তারা করছে। এবিষয়ে আমরা জেলা প্রশাসক ও স্থানীয় প্রশাসনকে প্রতিকারের  জন্য লিখিত অভিযোগ করেছি।

উপজেলা মৎস কর্মকর্তা বদরুজ্জামান রানা বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। এছাড়াও উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষকেও অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবারগুলি। কর্তৃপক্ষের নিদের্শ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল ইমরান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে দ্রæত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।