ধুনটে স্বামীর ঘর থেকে স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ধুনটে স্বামীর ঘর থেকে স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার


রফিকুল আলম,ধুনট (বগুড়া): বগুড়ার ধুনট উপজেলায় স্বামীর ঘর থেকে শাপলা খাতুন (৩২) নামে তিন সন্তানের জননীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত শাপলা খাতুন উপজেলার রুদ্রবাড়িয়া গ্রামের কোব্বাদ সেখের স্ত্রী।

সোমবার বেলা ১২টার দিকে ধুনট থানায় থেকে শাপলার মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এর আগে ভোর ৫টার দিকে স্বামীর ঘরের ভেতর তীরের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় তার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।  

থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বিলশীতলা গুচ্ছগ্রামের সোলাইমান হোসেনের মেয়ে শাপলা খাতুনের প্রায় ১৫ বছর আগে দিনমজুর কোব্বাদ সেখের সাথে বিয়ে হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে তিন সন্তানের জন্ম হয়। অভাব অনটনের সংসারে তাদের সব সময় অশান্তি লেগেই থাকে। রবিবার সন্ধ্যার দিকে পারিবারিক বিষয়াদি নিয়ে ঝগড়া বিবাদের এক পর্যায়ে কোব্বাদ অভিমান করে বাড়ির বাইরে যায়। এরপর রাত ৯টার দিকে বাড়ি ফিরে স্ত্রীর ঝুলন্ত মৃতদেহ ঘরের ভেতর দেখে স্বজনদের খবর দেয়। সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে শাপলার মৃতদেহ উদ্ধার করে।

নিহতের ভাই জাহিদুল ইসলাম জানান, শাপলা খাতুন জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে মানষিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে। রোগ যন্ত্রনা সইতে না পেরে শাপলা তার স্বামীর ঘরের ভেতর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অস্বাভাবিক মৃত মামলা (ইউডি) রেকর্ড করা হয়েছে। মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া মর্গে পাঠানো হয়েছে। তার মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। 

শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।