পঞ্চক্রোশি ইউনিয়নকে আধুনিক রূপ দিতে চান চেয়ারম্যান ফিরোজ

পঞ্চক্রোশি ইউনিয়নকে আধুনিক রূপ দিতে চান চেয়ারম্যান ফিরোজ



রাজু আহমেদ সাহান - উল্লাপাড়া প্রতিনিধি: বিদ্যা নয়, জ্ঞানের আলোকে অন্ধকারকে দুর করতে চান বিপ্লবী জনপ্রতিনিধি তৌহিদুল ইসলাম ফিরোজ। বিপ্লবী তাকেই বলা যেতে পারে, যিনি পরের জন্য নিজেকে বির্সজন দিতে জানেন। 

মফস্বল রাজনীতিতে একজন আদর্শ রাজনীতিবিদ, মানবতার বাতিঘর ও সমাজসেবী  হিসেবে তিনি অতি পরিচিত মুখ। 

তৌহিদুল ইসলাম ফিরোজের ৪৫বছরের জীবনে আদর্শ রাজনীতি, জনকল্যাণ ও সমাজ উন্নয়নমুলক তিনটি ক্ষেত্রেই তিনি বেশ সাফল্যের সহিত নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছেন সমাজে। বিনয়ী, ভদ্র, ন¤্র, দেশপ্রেম, কর্তব্যনিষ্ঠা, কঠোর পরিশ্রম এবং সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালনই এই সাফল্যের মুলমন্ত্র। সাধারন মানুষের মাঝে তিনি অতিসাধারন হওয়ায় সমাজের একজন মহান মানুষে পরিণত হয়েছেন তিনি। 

সরকারের দেশব্যাপী অনুষ্ঠিতব্য স্থানীয় সরকার নির্বাচন সাময়িকভাবে বন্ধ থাকলেও আগামী ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে উল্লাপাড়ার জনপদে বিভিন্ন পদের প্রার্থী ও ভোটারদের মধ্যে সর্বত্র সরগরম হয়ে উঠেছে নির্বাচনী প্রচারণা। পাড়ায়-পাড়ায়, মহল্লায়-মহল্লায় ও হাট-বাজারের চা আড্ডা আলাপনে ভোটার ও জনগণের মধ্যে ইউপি নির্বাচনকে নিয়ে আলোচনার ঝড় বইছে। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কোন পরিষদে, কোন দলের, কে পাচ্ছেন মনোনয়ন। অবসরে, খোস-গল্পে ও চা আড্ডায় ভোটের হিসাব কষছেন ভোটাররা। বিভিন্ন প্রার্থীর ব্যক্তিগত জীবনী ও পারিবারিক ইতিহাস এবং রাজনৈতিক জনপ্রিয়তাকে ঘিরেই মেলাচ্ছে হিসাব। পঞ্চক্রোশি ইউপি নির্বাচনে জনপ্রিয়তা ও উন্নয়নে মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে রয়েছে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা, দলের দুঃসময়ের কান্ডারী, যুব সমাজের আইডল, রাজপথের পরীক্ষিত সৈনিক ও বর্তমান ইউনিয়ন পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলাম ফিরোজ।
বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত শওকাত ওসমান ১৯৯০ সালের এরশাদ বিরোধী আন্দোলন, বিএনপি’র ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রয়ারীর প্রহসনের নির্বাচনকে প্রতিহত করে ১২ জুন সর্বদলীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ’লীগ দলীয় প্রার্থীকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করতে অগ্রণী ভুমিকা পালন করেন এই প্রতিবাদী নেতা। বিরোধী দল কতৃক নির্যাতিত এই নেতা উল্লাপাড়া উপজেলা আ’লীগের নেতৃত্বে লগি বৈঠার আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখেন। ১/১১ আন্দোলন থেকে শুরু করে ২০১৪ সালে জামায়াত-বিএনপি’র অগ্নি সন্ত্রাস মোকাবিলায় তিনি ছিলেন রাজপথের অতন্দ্র প্রহরী। দলের প্রতিটি আন্দোলন ও সংগ্রামে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে তিনি সর্বত্র রাজপথে অটল ছিলেন।

বিপ্লবী, সময়ের সাথে সাহসী এই আওয়ামীলীগ নেতা তৌহিদুল ইসলাম ফিরোজ উল্লাপাড়ার পঞ্চক্রোশি ইউনিয়নে ২০১৬ সালে চেয়ারম্যান পদে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে এলাকার উন্নয়ন ও সেবামুলক কার্যক্রমে ব্যাপক সুনাম অর্জন করেন। প্রতিটি গ্রাম ও মহল্লার রাস্তা-ঘাট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো উন্নয়নসহ এলাকার নানাবিধ উন্নয়ন কাজ করে তিনি মাইল ফলক দৃষ্টান্ত রেখেছেন। ইউনিয়নে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠির মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে বিভিন্ন স্বনামধন্য স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার পরিচালনা পর্ষদে যুক্ত থেকে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করে আসছেন তিনি। শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক হিসেবে ইউনিয়নের প্রতিটি মহল্লার মসজিদ, মন্দির, কবরস্থান, মাদ্রাসা ও এতিমখানায় ব্যাপক উন্নয়নে তার রয়েছে বিশেষ অবদান।
সৎ, বিনয়ী এবং সদালাপী এই জনদরদী নেতা মনে করেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ কর্মকর্তারা তার সারা জীবনের রাজনৈতিক কর্মকান্ডের সুবিবেচনায় সৎ, যোগ্য, মেধাবী এবং দলের দুঃসময়ের ত্যাগী কর্মী হিসেবে তাকেই আবার মনোনয়ন দিবেন। তিনি জনগনের ভালোবাসা এবং সমর্থন নিয়ে স্বাধীনতার প্রতীক নৌকাকে বিজয়ী করে চেয়ারম্যান পদটি আবারও দলকে উপহার দিতে পারবেন বলে তার দৃঢ় প্রত্যাশা। তিনি আরো আশা প্রকাশ করে বলেন, আগামীতে পুনরায় নির্বাচিত হলে পঞ্চক্রোশি ইউনিয়নের অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করে এলাকায় স্বাস্থ্য, শিক্ষা, শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি, অবকাঠামো উন্নয়ন, বাল্য বিবাহ মুক্ত, তথ্য-প্রযুক্তি সমৃদ্ধ ও মাদকমুক্ত মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবেন বলে তার আগামী দিনের প্রত্যাশা।
 

শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।