কাজিপুরে ট্রলি চালকের রহস্যজনক মৃত্যু

কাজিপুরে ট্রলি চালকের রহস্যজনক মৃত্যু



কাজিপুর প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে এক ট্রলি চালক কিশোরের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তার নাম আবু হাশেম আকন্দ(১৭) । সে   উপজেলার হরিনাথপুর গ্রামের বিল্লাল আকন্দের পুত্র। এই ঘটনায় শুক্রবার (৯ জুলাই) দুপুরে নিহত কিশোরের পিতা বিল্লাল আকন্দ কাজিপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। 
 থানায় দেয়া মামলা ও স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, কিশোর আবু হাশেম সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলার ভূইয়াগাতি বাজার সংলগ্ন রাস্তার চলমান কাজের মালামাল বহনের ট্রলি চালাতেন।  গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ট্রলিটি হঠাৎ রাস্তার পাশে উল্টে গিয়ে ব্যথা পায় আবু হাশেম। পরে ট্রলির মালিক ভূইয়াগাতির রাজু মিয়া  আবু হাশেমকে চান্দাইকোনা বাজারের স্থানীয়  একটি ক্লিনিকে চিকিৎসার জন্যে নিয়ে যান। সেখানকার ডাক্তার তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিলে আবু হাশেম সুস্থ অনুভব করে। এসময় সে ক্লিনিক থেকে আসতে চাইলে ডাক্তার আবু হাশেমকে ছেড়ে দেন। তখন রাজু  তাকে ক্লিনিক থেকে নিচে নামান। এসময় আবারো হাশেম অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ওই  হাসপাতালে নেয়া হয়। তখন ডাক্তার তার এক্সরে করান। 
রাত সাড়ে আটটায় আবু হাশেম সুস্থ অনুভব করে হাসপাতাল ছাড়েন। এসময় সে তার গ্রামের বাড়ি হরিনাথপুরে নিয়ে যাবার জন্যে ট্রলি মালিক রাজংপল অনুরোধ করেন। ট্রলি মালিক রাজু  আবু হাশেমকে তার মোটর বাইকের মাঝখানে বসিয়ে আরেকজন লোকসহ কাজিপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। রাত সাড়ে নয়টায় রাজু আবু হাশেমের পিতা বিল্লাল হোসেনকে ফোন করে আবু হাশেমের অসুস্থতার কথা জানান এবং তাকে নেবার জন্যে সিএনজি অটোরিক্সা নিয়ে কাজিপুরের ভানুডাঙ্গা বাজারে আসতে বলেন। কথামতো আবু হাশেমের পিতা রাত সাড়ে দশটায় ওই বাজারে  গিয়ে অপেক্ষা করতে থাকেন। 
 রাত সাড়ে এগারোটায় ওই বাজার এলাকায় রাজু ও তার সাথে আসা ব্যক্তি আবু হাশেমকে নিয়ে  চারভানুডাঙ্গা তিন রাস্তার মোড়ে আসেন। এসময় রাজু ও  তার সাথের লোক দ্রæত আবু হাশেমকে মোটরবাইক থেকে নেমে সিএনজি অটোরিক্সায় শুইয়ে দেয়। বিল্লাল হোসেন তার ছেলেকে  ডাকাডাকি করেন ও নাড়া দিয়ে কোন সাড়া  না পেয়ে চিৎকার দিয়ে ওঠেন। এসময় স্থানীয় লোকজন ওই সিএনজি অটোরিক্সার নিকট জড়ো হয়। এরই ফাঁকে ট্রলি মালিক রাজু তার সাথের ওই ব্যক্তিকে নিয়ে দ্রæত সটকে পড়েন।  বিল্লাল হোসেন বিষয়টি রাতেই কাজিপুর থানা পুলিশকে জানান। থানা পুলিশ রাতে ঘটনাস্থলে গিয়ে আবু হাশেমকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেন। শুক্রবার ভোরে থানা পুলিশ আবু হাশেমের লাশ সিরাজগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেন।  
 কাজিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ পঞ্চনন্দ সরকার জানান, এই ঘটনায় দুইজনকে আসামী করে নিহতের পিতা বিল্লাল হোসেন আকন্দ মামলা দায়ের করেছেন।  ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলেই মৃত্যু বিষয়ে  জানা যাবে।
 

শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।