বিনা টাকায় অক্সিজেন পৌঁছে দেন বাঁশখালী ব্লাড ব্যাংক

বিনা টাকায় অক্সিজেন পৌঁছে দেন বাঁশখালী ব্লাড ব্যাংক
ফ্রি-অক্সিজেন নিয়ে মোটর সাইকেলে ছুটে চলছেন বাঁশখালী ব্লাড ব্যাংকের সদস্যরা। ছবি: শিব্বির আহমেদ রানা


শিব্বির আহমদ রানা, বাঁশখালী চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন বাঁশখালী ব্লাড ব্যাংক একঝাঁক তরুণদের নিয়ে রক্তের সন্ধানে কাজ করে। রাত-দিন ২৪ ঘন্টার যে কোন সময় তারা ছুটে যান মুম‚র্ষু রোগীদের ব্লাড দিতে। বাঁশখালীর প্রথম ব্লাড ব্যাংক এটি। 

বেশকয়েক বছর ধরে স্বেচ্ছায় রক্তদান করে যাচ্ছে তারা। ইতোমধ্যে দুই হাজারের অধিক ব্লাড ডোনেশন করার স্বাক্ষর রাখে বাঁশখালী ব্লাড ব্যাংক। মুম‚র্ষুদের রক্তদানের পাশাপাশি তারা গ্রামে-গঞ্জে ব্লাড গ্রুপ নির্ণয় করা সহ ব্লাডদানে সচেতন ক্যাম্প করেন। এদের বেশীর ভাগই শিক্ষার্থী। মধ্যে রোগীদের কাছে ব্লাড ডোনার পাঠিয়ে বাঁশখালীতে সমধিক পরিচিত অর্জন করেছে মানবতাবাদী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন 'বাঁশখালী ব্লাড ব্যাংক।


করোনা মহামারিতে সারাদেশ যখন অক্সিজেন সংকটে, প্রতিদিন কোথাও না কোথাও মানুষের মৃত্যু হচ্ছে তখন সাধারণ মানুষের পাশে ছুটে চলার অঙ্গিকারে তারা শুরু করেছে ফ্রি-অক্সিজেন সেবা। তারা যখনই ফোন পাচ্ছে শ্বাসকষ্টে রোগী কাতরাচ্ছে তখনই অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে দাঁড়াচ্ছেন রোগীদের পাশে। বাড়ীতে পৌঁছে দিচ্ছেন অক্সিজেন সিলিন্ডার। এ জন্যে তারা কোনো পারিশ্রমিক নেন না। মোটর সাইকেলে করে অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে ছুটে চলছে দিন-রাত।


বাঁশখালী ব্লাড ব্যাংকের ফ্রি-অক্সিজেন সেবায় এ সংকটকালে বাঁশখালী উপজেলায় শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যাওয়া রোগীরা ভরসা পাচ্ছে।


এ ব্যাপারে বাঁশখালী ব্লাড ব্যাংকের পরিচালক সজীব নমঃ শুভ বলেন, 'মুম‚র্ষু রোগীর অক্সিজেন প্রয়োজন হলে আমরা পৌঁছে দিচ্ছি ফ্রি-অক্সিজেন সেবা। উপজেলার কালিপুর ইউনিয়নের পালেগ্রামে শ্বাসকষ্ট রোগীর পরিবারের কাছে পৌঁছে অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে আমাদের সেবাকার্যক্রম শুরু হয়। প্রয়োজনে আমাদের এ সেবা কার্যক্রম আরো বৃদ্ধি করবো। এ সেবা করোনাকালীন সময় অবধি চলমান রাখব।'


বাঁশখালী ব্লাড ব্যাংকের এডমিন মু. ফারুকুল ইসলাম বলেন, 'গত সোমবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নে এক রোগীর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কমে গেলে শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। পরে আমাদেরকে ফোন দিলেই তাদের বাড়ীতে অক্সিজেন পৌঁছে দিই। একই দিনে উপজেলার পৌরসভার চক্রবর্তী পাড়ায় দুপুরে এক রোগীর শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে তার পরিবারের ফোন পেয়ে মোটর সাইকেলে করে ফ্রি-অক্সিজেন পৌঁছে দিই। একইভাবে বৈলছড়ি ইউনায়নের এক রোগীর বাড়িতেও অক্সিজেন পৌঁছে দিই। এখন পর্যন্ত আমরা ৪ জন মুম‚র্ষু রোগীর পাশে অক্সিজেন সেবা দিয়ে যাচ্ছি। এ সেবা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।'


ব্লাড ব্যাংকের সদস্যরা রোগীদের উদ্দেশ্যে বলেন, 'ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে অক্সিজেন সেবা গ্রহণ করুন। যে কোন শ্বাসকষ্টে জরুরি অক্সিজেন সেবা পেতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। সজীব- ০১৮১২৫২১১৭১,ফারুক-০১৮১০৬৪৬৫৪৮,রহমান-০১৬২৬৯০০৯৮৭,সানি-০১৮৭৯৪৪৭৩৭০। তারা তাদের এ সেবাকার্যক্রমে সকলের সহযোগীতা কামনা করেন।


বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার শফিউর রহমান মজুমদার বলেন, 'করোনায় আক্রান্ত বেশীরভাগ রোগী বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ কারণে তাঁদের শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে জরুরি অক্সিজেন প্রয়োজন হয়। বাঁশখালী ব্লাড ব্যংক রোগীদের বাড়ীতে গিয়ে বিনাম‚ল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দেওয়ার কাজ করছেন। মানুষের দুঃসময়ে তারা পাশে দাঁড়াচ্ছেন। তাদের এ উদ্যোগ প্রশংসনীয় ও অনুকরণীয়।’


 

শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।