ধুনটে যমুনা নদীর তীরে ধ্বস

ধুনটে যমুনা নদীর তীরে ধ্বস



রফিকুল আলম,ধুনট (বগুড়া): বগুড়ার ধুনট উপজেলায় যমুনা নদীর ডান তীর সংরক্ষন প্রকল্প এলাকায় ভয়াবহ ধ্বস দেখা দিয়েছে। যমুনার পানি বৃদ্ধির সাথে প্রবল স্রোতে প্রকল্প এলাকায় আঘাত হানায় শনিবার মধ্যরাতে পুকুরিয়া গ্রামের সামনে এই ধ্বস শুরু হয়।

অব্যাহত ধ্বসের ফলে রোববার দুপুর পর্যন্ত দুই স্থানে প্রায় শত মিটার অংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। এতে করে নদীর তীরবর্তি এলাকার জনবসতি ও বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ ভাঙনের ঝুকিতে পড়েছে। ফলে ভাঙন জনপদের মানুষের মাঝে চরম আতকং বিরাজ করছে।

বগুড়া পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়নের পূর্ব পাশ দিয়ে বহমান যমুনা নদী। প্রতি বছর দফায় দফায় নদী ভাঙনের ফলে এলাকার আবাদি জমি, জনবসতি ও বিভিন্ন স্থাপনা বিলীন হতে থাকে। এ কারণে পাউবোর অর্থায়নে ডান তীর সংরক্ষন প্রকল্পের কাজের সিন্ধান্ত নেওয়া হয়।

এই প্রকল্পের আওতায় ২০১৬ সালে প্রায় ২২ কোটি ব্যয়ে পুকুরিয়া এলাকায় ৬০০ মিটার অংশ কাজ করা হয়। নদীর তীর স্লোপ করে তার উপর জিও চট বিছিয়ে সিসি ব্লক প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে এই কাজ শেষ করে। এতে ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা হয় পুরো এলাকা। কিন্ত কয়েক দিন ধরে নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। এতে পনির প্রবল স্রোত ঘর্ণেবর্তের সৃষ্টি হয়ে যমুনার তীর আঘাত হানায় প্রকল্প এলাকায় ভাঙন শুরু হয়। এই ভাঙন ধেয়ে আসছে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ ও জনবসতির দিকে।

উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আতিকুল করিম আপেল বলেন, শনিবার মধ্যরাত থেকে প্রকল্প এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। ভাঙন স্থান দ্রুত মেরামত না করলে পুরো প্রকল্প এলাকা নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার আশংকা রয়েছে। এ বিষয়টি পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

বগুড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী হুমায়ুন কবির বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। প্রকল্প এলাকার ভাঙন স্থান মেরামতের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। দুই এক দিনের মধ্যে মেরামত কাজ শুরু করা হবে।  


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।