ইসলামপুরের তিন শিক্ষার্থীর নিখোঁজের কারন জানালেন পুলিশ সুপার

ইসলামপুরের তিন শিক্ষার্থীর নিখোঁজের কারন জানালেন পুলিশ সুপার



জামালপুর প্রতিনিধি : জামাপুরের ইসলামপুর থেকে নিখোঁজের ৫ দিন পর তিন মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে রাজধানী ঢাকা থেকে উদ্ধারের পর সংবাদ সম্মেলন করেছে পুলিশ। 

শুক্রবার বিকেলে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।  

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মো: নাসির উদ্দিন আহমেদ জানান, মাদ্রাসায় পড়তে ভালো না লাগায় ইসলামপুর উপজেলার দারুত তাক্বওয়া মহিলা ক্বওমী মাদরাসা থেকে দ্বিতীয় শ্রেনীর তিন শিক্ষার্থী উপজেলার গাইবান্ধা ইউনিয়নের পোড়ারচর সরদারপাড়া গ্রামের মাফেজ শেখের মেয়ে মীম আক্তার (৯), গোয়ালেরচর ইউনিয়নের সভূকুড়া গ্রামের সুরুজ্জামানের মেয়ে সূর্যবানু (১০) ও মোল্লাপাড়া গ্রামের মনোয়ার হোসেনের মেয়ে মনিরা (১১) গত রোববার রাতে পালিয়ে যায়। 

নিখোঁজ ওই তিনজনকে উদ্ধারের পর জিজ্ঞাসাবাদে তারা এই তথ্য জানিয়েছে। এখন আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তাদের অভিভাবকদের হাতে তুলে দেয়া হবে। 

পুলিশ সুপার আরও বলেন, নিখোঁজের পর গত বুধবার নিখোঁজ মনিরার পিতা মো: মনোয়ার হোসেন ইসলামপুর থানায় মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে মামলা করলে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। 

সে দিনই ইসলামপুর থানার পুলিশ কল্যাণ মার্কেটের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায় ওই তিন ছাত্রী ইসলামপুর রেল স্টেশনের দিকে যাচ্ছে। 

পরের দিন ইসলামপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মো: সুমন মিয়ার নেতৃত্বে একটি টিম ঢাকার কমলাপুর রেল স্টেশনের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করে দেখতে পায় তারা তিন জন কমলাপুর স্টেশনের গেইট দিয়ে বাইরে বের হয়ে যাচ্ছে। 

এই ফুটেজের সূত্র ধরে গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে এগারোটার দিকে মুগদার মান্ডা এলাকার এক বস্তি থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। রাতেই তাদের সেখান থেকে উদ্ধার করে জামালপুরে আনা হয়েছে। 

পুলিশ সুপার আরও জানান, আমরা এই কয়েকদিন শিক্ষার্থী তিনজনকে উদ্ধারে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছি। 

এখন তদন্ত করে দেখা হবে মাদ্রাসাতে শিক্ষার্থীদের উপর কোন প্রকার নির্যাতন করা হয়েছে কিনা।

 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।