বকশীগঞ্জে মালয়েশিয়া প্রবাসীর ক্রয়কৃত জমি জবর-দখলের অভিযোগ

বকশীগঞ্জে মালয়েশিয়া প্রবাসীর ক্রয়কৃত জমি জবর-দখলের অভিযোগ



নূরুজ্জামান খান: জামালপুরের বকশীগঞ্জে এক মালয়েশিয়া প্রবাসীর ক্রয়কৃত জমি জবর-দখলের অভিযোগ উঠেছে পূর্বের মালিকের বিরুদ্ধে। 

এ নিয়ে গত ১৯ অক্টোবর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বগারচর ইউনিয়নের আলীরপাড়া গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে আবদুল আজিজ ও তার ভাই আবদুল লতিফ স্থানীয় নঈম মিয়ার বাজারের পশ্চিম পাশে রাস্তা ঘেঁষে ঘাসিরপাড়া মৌজায় ৪ শতাংশ জমি কিনেন। 

জমির মালিক ঘাসিরপাড়া ডাকপাড়া গ্রামের আবদুল লতিফের ছেলে আবদুল হালিম বর্তমান মালিক আবদুল আজিজ ও তার ভাই আবদুল লতিফের কাছে ৪ শতাংশ জমি বিক্রি করেন। 

২০১৮ ও ২০১৯ সালে বকশীগঞ্জ সাব-রেজিস্ট্রি কার্যালয়ে জমিটি নিবন্ধন করা হয় এবং জমির মালিক আবদুল আজিজকে জমির দখলদার বুঝিয়ে দেওয়া হয় ও জমিটি তাদের নামে খারিজ দেওয়া হয়।

এরই মধ্যে আবদুল আজিজ জীবিকার তাগিদে মালয়েশিয়ায় চলে গেলে জমিটি দেখাশুনার জন্য পূর্বের মালিক আবদুল হাকিম পক্ষদের দায়িত্ব দেন।

বর্তমান জমির মালিক আবদুল আজিজ মালয়েশিয়া থেকে ফিরে তার কেনা স্বত্ব দখলীয় জমিতে দোকানপাট তুলতে গেলে পূর্বের মালিক বাধা ও বিভিন্নভাবে হুমকি দেন। 

এমনকি তাদেরকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকিও দেন। 

আবদুল হালিম জমিটি বর্তমান মালিকদের বুঝিয়ে না দিয়ে টালবাহানা করছেন।

নিজের কেনা জমিতে দোকানপাট তুলতে না দিয়ে জমিটি জবর দখল করায় জমিটি উদ্ধারের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগী আবদুল আজিজের পরিবার।

তিনি এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বকশীগঞ্জ থানার ওসির সদয় দৃষ্টি কামনা করেন। 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।