“২০৩৫ সালে বাংলাদেশ বিশ্বের ২৫তম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ হবে”

“২০৩৫ সালে বাংলাদেশ বিশ্বের ২৫তম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ হবে”



সেবা ডেস্ক: যথাযোগ্য মর্যাদা উৎসবমুখ’র পরিবেশে জাতিসংঘে বাংলাদেশে’র স্থায়ী মিশন নিউইয়র্কে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশে’র স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা বলেছেন, বাংলাদেশ আজ বিশ্বে’র ৪১তম অর্থনীতি’র দেশ। 

আশা করা যায়, ২০৩৫ সাল নাগাদ বাংলাদেশ বিশ্বে’র ২৫তম বৃহত্তম অর্থনীতি হিসেবে আত্মপ্রকাশ ক’রবে। কোভিড-১৯ ব্যবস্থাপনা অব্যাহত অর্থনৈতিক উন্নয়নে বিশ্বে’র কাছে আজ রোল মডেল বাংলাদেশ।

বাংলাদেশে’র মহান স্বাধীনতা’র সুবর্ণজয়ন্তী এবং জাতি’র পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবু’র ‘রহমানে’র জন্মশতবার্ষিকী’র শুভক্ষণে স্থায়ী মিশন আয়োজিত এবারে’র বিজয় দিবসে’র অনুষ্ঠান দুটি পর্বে ভাগ করে উদযাপন করা হয়।

সকাল সাড়ে নয়টায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন জাতীয় সংগীত পরিবেশনে’র মধ্য দিয়ে প্রথম পর্ব শুরু হয়।  এ’রপ’র মহান মুক্তিযুদ্ধে’র শহিদদে’র স্মৃতি’র উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধা নিবেদন করে এক মিনিট নী’রবতা পালন করা হয়। 

অতঃপ’র সুবর্ণজয়ন্তী মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী পাঠকৃত শপথ বাক্য অনুস’রণ করে স্থায়ী প্রতিনিধি’র নেতৃত্ব মিশনে’র সকল স্তরে’র কর্মকর্তা-কর্মচারি শপথ বাক্য পাঠ করেন।

অনুষ্ঠানটি’র দ্বিতীয় পর্ব আলোচনা অনুষ্ঠান শুরু হয় স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায়। কোভিড-১৯ এ’র নতুন ধ’রনওমিক্রনএ’র পরিপ্রেক্ষিতে দূতাবাস ভবনস্থ বিল্ডিং কর্তৃপক্ষ স্থানীয় নির্দেশনা অনুযায়ী ভার্চুয়ালি আলোচনা পর্বটি অনুষ্ঠিত হয়।

এতে অংশগ্রহণ করেন প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ যুক্তরাষ্ট্রে’র মূলধারায় সম্পৃক্ত তরুণ বাংলাদেশি-আমেরিকানসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশা’র প্রবাসী বাংলাদেশি নেতারা।

আলোচনা শুরু’র আগে মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী বী’র শহিদদে’র স্ম’রণে এক মিনিট নী’রবতা পালন তাদে’র বিদেহী আত্মা’র মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, প’ররাষ্ট্রমন্ত্রী প’ররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী’র বাণী পাঠ করে শোনানো হয়। আলোচনা পর্বে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশে’র স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। 

বক্তব্যে’র শুরুতেই তিনি জাতি’র পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবু’র ‘রহমান, বঙ্গমাতাসহ ১৫ আগস্টে’র শাহাদাত ব’রণকারী জাতি’র পিতা’র পরিবারে’র সকল সদস্য, জাতীয় চা’র নেতা এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে’র ত্রিশ লাখ শহিদ দুই লাখ সম্ভ্রমহারা মা-বোনসহ সকল মুক্তিযোদ্ধাদে’র প্রতি গভী’র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু’র স্বপ্নে’র সোনা’র বাংলা গড়া’র লক্ষ্যে তা’র সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র বলিষ্ঠ নেতৃত্বে রূপকল্প-২০২১, রূপকল্প-২০৪১ ডেল্টা পরিকল্পনা-২১০০ বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে বাংলাদেশ স’রকা’র। 

বছ’র নভেম্ব’র মাসে স্বল্পোন্নত দেশে’র ক্যাটাগরি থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়া’র জন্য আমরা জাতিসংঘে’র চূড়ান্ত অনুমোদন লাভ করেছি, যা জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আমাদে’র মর্যাদা সক্ষমতা’র স্বাক্ষ’র।

জাতিসংঘ শান্তি’রক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশ নেতৃস্থানীয় ভূমিকা’র কথা তুলে ধরে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা বলেন, বাংলাদেশ এখন শীর্ষ শান্তি’রক্ষী প্রে’রণকারী দেশ। 

২০৩০ টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা, জলবায়ু পরির্বতন, অভিবাসন, বিশ্বশান্তি ‘রক্ষা, শান্তি-বিনির্মাণ, দারিদ্র্য দূরীক’রণ বিষয়ক আলোচনা নারী’র ক্ষমতায়নসহ অসংখ্য বহুপাক্ষিক প্লাটফর্মে বাংলাদেশ নেতৃত্বশীল ভূমিকা রেখে চলেছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

প্রবাসী বাংলাদেশি সম্প্রদায়ে’র উদ্দেশে তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রবাসী বাংলাদেশিদে’র অগ্রণী ভূমিকা বিদেশে’র মাটিতে বাংলাদেশে’র সুনাম বৃদ্ধি ক’রছে। 

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নতুন প্রজন্মে’র আমেরিকানরা এখানকা’র মূল ধারা’র রাজনীতিতে নেতৃত্বশীল ভূমিকা রাখতে শুরু করেছে, যা অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক।

প্রবাসীদে’র উদ্দেশ্যে মহান মুক্তিযুদ্ধে’র প্রেক্ষাপটসহ বাঙালি জাতি’র চূড়ান্ত বিজয় অর্জনে’র লক্ষ্যে জাতি’র পিতা’র সুদীর্ঘ সংগ্রামে’র নানা দিক তুলে ধরেন বাংলাদেশে’র স্থায়ী প্রতিনিধি। 

জাতি’র পিতা বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদে’র মধ্যে যারা যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান ক’রছেন, তাদে’র দেশে’র ফিরিয়ে এনে বিচারে’র আওতায় আনতে সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

উন্মুক্ত আলোচনায় বক্তব্য রাখেন- যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ এ’র সহযোগী সংগঠন, মুক্তিযোদ্ধা শহিদ পরিবারে’র সন্তান এবং নতুন প্রজন্মে’র বাংলাদেশি-আমেরিকান নেতারা। 

তারা তাদে’র অর্জিত অভিজ্ঞতা, জ্ঞান দক্ষতা দিয়ে বাংলাদেশে’র উন্নয়ন তথা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত রূপকল্পগুলো’র বাস্তবায়নে স্ব-স্ব ক্ষেত্রে অবদান রাখা’র প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।