বিবাহিত ও অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রীদের হলে থাকতে বাধা নেই

বিবাহিত ও অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রীদের হলে থাকতে বাধা নেই



সেবা ডেস্ক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে’র ছাত্রীদে’র আবাসিক হলে বিবাহিত অন্তঃসত্ত্বা মেয়েদে’র থাকতে না দেওয়া’র যে বিধান ছিলো, তা বাতিল করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। 

বিগত কয়েক দিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ে’র শিক্ষার্থীদে’র প্রতিবাদে’র মুখে বুধবা’র সন্ধ্যায় উপাচার্য বাসভবনে প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটি’র এক সভায় এই নিয়ম বাতিলে’র সুপারিশ করা হয়। উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামানে’র এতে সভাপতিত্ব করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটি’র সদস্য সচিব প্রক্ট’র অধ্যাপক একেএম গোলাম ‘রব্বানী।

তিনি বলেন, আবাসিক মেয়েদে’র হলে বিবাহিত অন্তঃসত্ত্বাজনিত বিশ্ববিদ্যালয়ে’র বিধিনিষেধ ‘রহিত করা হয়েছে। এক্ষেত্রে অন্তঃসত্ত্বা  শিক্ষার্থী’র মাতৃত্বজনিত স্বাস্থ্য শিশু’র নিরাপদ স্বাস্থ্য নিশ্চিত করা’র লক্ষ্যে পারিবারিক পরিেিবশে থাকা’র বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় সমীচীন মনে করেছে। প্রভোস্ট কমিটি’র সভা’র সিদ্ধান্ত সুপারিশ হিসেবে প’রবর্তী সিন্ডিকেটে উত্থাপন করা হবে। সেখানেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।   

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ে’র ১৮ আবাসিক হলে’র মধ্যে ছাত্রী হল পাঁচটি। ছাত্রী হলগুলোতে বিবাহিত অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রীদে’র থাকা’র ক্ষেত্রে বিধি-নিষেধ ‘রয়েছে। এছাড়া আবাসিক হয়ে হলে ওঠা’র সময় একজন ছাত্রী’র ২৭টি শর্ত সম্বলিত একটি অঙ্গীকা’রনামায় স্বাক্ষ’র ক’রতে হয়। এ’র মধ্যে একটি ধারায় উল্লেখ আছেকোনো ছাত্রী বিবাহিত হলে অবিলম্বে কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে। অন্যথায় নিয়ম ভঙ্গে’র কা’রণে তা’র সিট বাতিল করা হবে। শুধু বিশেষ ক্ষেত্রে বিবাহিত ছাত্রীকে হলে থেকে অধ্যয়নে’র সুযোগ দেওয়া হবে। অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রী হলে থাকতে পা’রবেন না।

সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ে’র শামসুন নাহা’র হলে এক ছাত্রী’র সিট বরাদ্দ দেয়া নিয়ে নতুন করে আলোচনায় আসে বিষয়টি। প’রবর্তীতে এই নিয়মকেঅদ্ভূত আদিকালে’রআখ্যা দিয়ে তা বাতিলে’র দাবি জানায় বিশ্ববিদ্যালয়ে’র ছাত্রীরা। এই নিয়ম বাতিলে’র দাবি জানিয়ে উপাচার্যে’র নিকট লিখিত আবেদন জানান তারা।

দাবিগুলো হলো- ‘বিবাহিত ছাত্রীদে’র হলে থাকা’র যে বিধি-নিষেধ তাদে’র জন্য প্রচলিত যে নিয়ম তা বাতিল করা; শিক্ষার্থীদে’র প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিকে’র মর্যাদা ‘রক্ষার্থে সব ছাত্রী হলেস্থানীয় অভিভাবক’-এ’র পরিবর্তেজরুরি যোগাযোগশব্দে’র প্রবর্তন করা; আবাসিক শিক্ষক, কর্মকর্তা কর্মচারীদে’র মাধ্যমে হয়রানি বন্ধ করাসহ হয়রানি ক’রলে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেওয়া শিক্ষা কার্যক্রম চলমান থাকা সাপেক্ষে অনাবাসিক ছাত্রীদে’র হলে প্রবেশে’র অধিকা’র পুনর্বহাল করাসহ জরুরি প্রয়োজনে তাদে’র হলে থাকতে দেওয়া।এই ঘটনা’র পরে বিশ্ববিদ্যালয়ে’র বিভিন্ন মহল থেকে নিয়মটি বৈষম্যমূলক আখ্যা দিয়ে বাতিলে’র দাবি জানানো হয়।

ছাড়া বুধবা’র সকালে সুপ্রিম কোর্টে’র আইনজীবী মোহাম্মদ শিশি’র মনি’র এই নিয়ম বাতিল চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে’র উপাচার্য, রেজিস্টা’র এবং শামসুন নাহা’র হল, বাংলাদেশ-কুয়েত-মৈত্রী হল সুফিয়া কামাল হলে’র প্রভোস্টকে আইনি নোটিশ পাঠান। এসবে’র পরিপ্রেক্ষিতে সন্ধ্যায় প্রভোস্ট কমিটি’র সভা ডেকে বাতিলে’র সুপারিশ করা হয়। 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।