বাঁশখালীতে শতবর্ষী ছড়া দখল করে স্থাপনা নিমাণের অভিযোগ

https://www.ajkertangail.com/country/39643
ছবি: শিলকূপে শতবর্ষী ছড়া দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করছে প্রভাবশালী ভূমিদস্যু।



 : বাঁশখালী উপজেলার শিলকূপ ইউনিয়নের পূর্ব-মনকিচর মোহাব্বত আলী পাড়া একটি জনবহুল গ্রাম। শিলকূপ ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার এ গ্রামের মোহাব্বত আলী পাড়ার সর্ব পূর্বদিকে বয়ে যাওয়া শতবর্ষী ছড়া অবৈধভাবে দখল করে নির্মাণ করা হচ্ছে পাকা স্থাপনা। 

প্রধান সড়ক হয়ে মনছুরিয়া বাজার হতে জালিয়াখালী নতুন বাজার পর্যন্ত সংযোগ সড়কের অদূরে মোহাব্বত আলী পাড়ার সর্ব পূর্ব দিকে ব্রিজ দিয়ে বয়ে যাওয়া শতবর্ষী শিলকূপ ছড়াটি জালিয়াখালী খালের সাথে সংযুক্ত। 

এ শতবর্ষী ছড়া দিয়ে বর্ষাকালে পূর্ব-মনকিচর এলাকার অধিকাংশ চাষিদের ও মোহাব্বত আলীপাড়ার ৫শতাধিক পরিবারের পানি নিষ্কাশন হয়ে থাকে। এটি একমাত্র বিকল্প ছড়া।


স্থানীয় প্রভাবশালী ফয়েজ উল্লাহ্ নামে এক ভূমিদস্যু ছড়া দখল করে অবৈধভাবে স্থাপনা নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। শতবর্ষী ছড়া অবৈধভাবে ভরাটে এলাকাবাসী বাধা দিলে উল্টো হুমকিধমকি দিয়ে যাচ্ছে ওই ব্যক্তি। 

এমনকি প্রয়োজনে সে অভ্যন্তরিণ সড়কটিও দখল করে নিবে বলে হুমকী দেয় এলাকাবাসীদের। দখলদার প্রভাবশালী হওয়ায় সাধারণ মানুষ কাউকে কিছু বলার সাহস পায় না। 

এ ছড়াটি ভরাট হয়ে গেলে মোহাব্বত আলী পাড়ার ৫টি মহল্লার ৫ শতাধিক পরিবার বর্ষাকালে পানিবন্ধি হয়ে পড়বে।


স্থানীয় ইউপি সদস্য আদর্শন বড়ুয়া বলেন, শতবর্ষী ছড়াটি দখল করে স্থাপনা নির্মাণের বিষয়টি এলাকাবাসীদের জন্য অশনিসংকেত বয়ে আনবে। 

বিশেষ করে মোহাব্বত আলী পাড়ার ৫শতাধিক পরিবারের লোকজন বর্ষাকালে পানিবন্ধি হয়ে পড়বে।  এ ছড়াটি দখলমুক্ত করা ও পুনঃখননের জন্য উপজেলা প্রশাসনের হসতক্ষেপ কামনা করেন তিনি।


স্থানীয় মু. সেলিম উদ্দিন বলেন, উক্ত শতবর্ষী ছড়াটি দখলমুক্ত করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্থবায়ন করা সহ অত্র এলাকার জনগণের দূর্ভোগ লাগবের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আমরা প্রশাসনের সুমতি কামনা করছি। 

অন্যতায় বর্ষাকালে এ গ্রামের ৫শতাধিক পরিবার পানিবন্ধি হয়ে পড়বে।


বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বরাবর শতবর্ষী ছড়া দখলমুক্ত করে, অবৈধ দখলের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণের লক্ষ্যে এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষর সম্বলিত একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন এলাকাবাসী।


এ বিষয়ে বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইদুজ্জামান চৌধুরী বলেন, আমি এলাকাবাসীদের লিখিত গণস্বাক্ষর সম্বলিত অভিযোগ পেয়েছি। 

শিলকূপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে এ বিষয়ে সরেজমিনে তদন্তপূর্বক দ্রুত প্রতিবেদন প্রেরণের জন্য অবহিত করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।