গাইবান্ধায় বইমেলার উদ্বোধন আগামীকাল

গাইবান্ধায় বইমেলার উদ্বোধন আগামীকাল



 : বই হোক জীবনের সেতু শ্লোগানে গাইবান্ধা সদর উপজেলার তুলসীঘাটে শেখ রাসেল মিনি ষ্টেডিয়াম মাঠে দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজন করা হয়েছে বইমেলার। 

চার দিনব্যাপী এই গ্লোবাল ভিলেজ বইমেলার উদ্বোধন করা হবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ)। আর শেষ হবে রবিবার (২৭ মার্চ)। সাহিত্য সংগঠন বিমল সরকার সাহিত্য সম্ভার ও পাঠাগারের বইমেলা উদযাপন কমিটির আয়োজনে এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন রিদম অব গ্লোবাল ভিলেজের সহযোগিতায় এই বইমেলা চলবে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। গত বছর একই স্থানে একই মাসে তিন দিনব্যাপী বইমেলার আয়োজন করে একই আয়োজনকারী সংগঠন।

বিমল সরকার সাহিত্য সম্ভার ও পাঠাগার সূত্রে জানা গেছে, বইমেলার উদ্বোধন করা হবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায়। মেলার উদ্বোধন করবেন তুলসীঘাট কাশিনাথ উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. মনসুর আলী সরকার ও গাইবান্ধা সরকারি মহিলা কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর এ. কে. এম শফিকুর রহমান। মেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গাইবান্ধার জেলা প্রশাসক মো. অলিউর রহমান ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের প্রাজ্ঞ আইনজীবি মো. সগীর আনোয়ার। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন রিদম অব  গ্লোবাল ভিলেজ বইমেলা আয়োজক কমিটির আহবায়ক কবি সরোজ দেব। অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিসহ সাহিত্য প্রেমি গুনীজন।

সূত্রটি আরও জানায়, বইমেলায় মোট স্টল থাকবে ৩০টি। সেগুলো হলো- জামান অনলাইন বুকশপ, স্বপ্নচূড়া পাঠাগার, কালের চিঠি প্রকাশন, প্রথম আলো গাইবান্ধা বন্ধুসভা, জ্ঞান অর্জন পাঠাগার, সৃজনশীল গাইবান্ধা, লেখিকা নাসরীনরেখা গ্রন্থাগার, অভিপ্রায় সংঘ, তুলসীঘাট যুব উদ্যোগ সংগঠন, ফুলকুঁড়ি বই ঘর, সুলতানা রাজিয়া পাঠাগার, স্বপ্নকানন ও ইকরা অনলাইন বুক শপসহ আরও ১৭টি প্রতিষ্ঠান। বইমেলায় থাকবে ছোটদের মজার মজার ছড়া, কবিতা ও গল্পের বই। থাকবে ধর্মীয়, বিজ্ঞান, গোয়েন্দা কাহিনী, উপন্যাস, প্রবন্ধ, কবিতা, ছড়া, গল্প, স্বাস্থ্যসহ নানান ধরনের নবীন-প্রবীণ বিভিন্ন লেখকের বই। বইমেলায় মোড়ক উন্মোচন করা হবে নতুন কাব্যগ্রন্থের। এছাড়াও থাকবে সাহিত্য আসর, আবৃত্তি, আলোচনা, শিশু-কিশোর ও যুবকদের মধ্যে জানা অজানার কুইজ, রচনা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, কবির কন্ঠে কবিতা পাঠ, নৃত্য, সংগীত ও নাটিকা।

সেভ দ্যা চিলড্রেনের গাইবান্ধা জেলা ভলান্টিয়ার মো. তাওহীদ তুষার বলেন, শিশুদেরকে বইমুখী গড়ে তুলতে হলে তাদেরকে বইমেলায় নিয়ে যেতে হবে। পছন্দের বই কিনে দিতে হবে। শিশু বইপড়ার অভ্যাস শিখবে পরিবারের বড়দের দেখে। তাই বড়দের উচিত শিশুদের সাথে নিয়ে বইমেলায় গিয়ে বই কেনা।

বিমল সরকার সাহিত্য সম্ভার ও পাঠাগারের সাধারণ সম্পাদক শামীম সরকার জানান, নতুন প্রজন্মের সাহিত্য ভাবনাকে মাথায় নিয়ে আলোকিত মানুষ গড়ার লক্ষ্যে বইমেলার আয়োজন করা হয়েছে। যা মেধা বিকাশে সৃজনশীল মানুষ গঠনে ভূমিকা রাখবে এবং অনেকে হাতের কাছে পাবে নতুন নতুন বই। তাই বইমেলায় স্বপরিবারে আসার তাগিদ দেন তিনি।

রিদম অব গ্লোবাল ভিলেজ বইমেলা আয়োজক কমিটির আহবায়ক কবি সরোজ দেব বলেন, বইমেলার সকল প্রস্তুতি শেষের দিকে। আগামীকাল বিকেল ৩টায় মেলার উদ্বোধন করা হবে। সাহিত্য প্রেমি ছাড়াও স্বপরিবারে সকল শ্রেণিপেশার মানুষের আমন্ত্রণ এই বইমেলায়।


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।