মেলান্দহে স্কুল ছাত্রীর সম্ভ্রমহানি: চিরকুট লিখে আত্মহত্যা

মেলান্দহে স্কুল ছাত্রীর সম্ভ্রমহানি চিরকুট লিখে আত্মহত্যা



 : জামালপুরের মেলান্দহে স্কুল ছাত্রীর সম্ভ্রমহানির ঘটনায় আত্মহত্যা করেছে আশামনি (১৫)। এ ঘটনায় ১১ মার্চ আশামনির পরিবার মেলান্দহ থানায় মামলা দায়ের করেছেন। 

মামলায় সাধুপুর কান্দারপাড়া গ্রামের ওয়াহাব চেয়ারম্যানের ভাতিজা এবং খোকা মোল্লার ছেলে তামিম আহমেদ স্বপন (২৫) কে আসামী করা হয়েছে। 

আশামনি মালঞ্চ এম.এ. গফুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। সে সাহাজাদপুর গ্রামের আবু মিয়ার একমাত্র মেয়ে। 

এ ঘটনার পর থেকেই লম্পট তামিম ও তার স্বজনরা গা ঢাকা দিয়েছে।

 স্বজনরা জানান-স্কুলে যাতায়াত পথে আশামনিকে বখাটে তামিম প্রায়ই উত্ত্যাক্ত করতো। বৃহস্পতিবার বখাটে তামিম আশামনির বান্ধবি বুলবুলি, মিথিলা ও শায়লাকে দিয়ে কৌশলে ডেকে নেয়। দিনভর একটি কক্ষে আটকে রেখে আশামনির সম্ভ্রমহানি করে এবং ভিডিও ধারণ করে তামিম আহম্মেদ স্বপন। 

ঘটনাটি বাইরে প্রকাশ না করলে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখায়। বিকেল ৩টায় আশামনি বাড়ি ফিরে নিজের ঘরে দরজা বন্ধ করে ঘুমিয়ে পড়ে। 

সন্ধ্যার দিকে কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে আশামনির মা শিলা বেগম জানালা দিয়ে মেয়েকে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। 

এ সময় আশামনির হাতের লেখা দুটি চিরকুটে লেখা ছিল, ‘তামিম আমাকে সারাদিন এক রুমে আটকাইছে। 

তামিম আমাকে খুব ডিস্টার্ব করত ও আমাকে বলেছে ওর সাথে দেখ করলে সে আমার জীবন থেকে চলে যাবে। কিন্তু ও আমার সাথে খুব খারাপ কিছু করেছে যা বলার মত না’।

মেলান্দহ থানার অফিসার ইনচার্জ এম এম ময়নুল ইসলাম জানান, এই ঘটনায় শুক্রবার সকালে আশামনির বাবা আবু মিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন। আসামীকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।    



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।