কাজিপুরে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবী করা যুবক সোহান ৩ মাস পর আটক

🕧Published on:

কাজিপুরে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবী করা যুবক সোহান ৩ মাস পর আটক



 : অবশেষে তিন সাম পর সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবী করা যুবক সোহানুর রহমান সোহান (২৫) ও তাঁর স্ত্রী মিম আক্তার (১৯) কে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। 


সোহান উপজেলার নাটুয়ারপাড়ার উত্তর রেহাইশুড়িবের গ্রামের নুরুল ইসলামের পুত্র। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নাটুয়ারপাড়া এলাকা থেকে সোহানকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্য মোতাবেক বুধবার ভোরে সিরাজগঞ্জ শহরের জানপুর এলাকার একটি ভাড়া বাড়ি থেকে অপহৃতাকে উদ্ধার  করে পুলিশ। এসময় সেখান থেকে সোহানের স্ত্রী মিম আক্তারকে গ্রেপ্তার করে কাজিপুর থানা পুলিশ।  


মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ মার্চ সকালে রেহাইশুড়িবের গ্রামের আলমগীর হোসেনের মেয়ে আঁখি খাতুন (১২) করোনার টিকা কার্ড প্রিন্ট করতে জন্ম নিবন্ধনের কপি নিয়ে ওই এলাকার গুলমোড়ে যায়। এরপর সে আর বাড়ি ফিরে আসেনি । পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে আঁখির বাবা ২৭ মার্চ কাজিপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর গত ২৩ জুন আঁখির বাবার মোবাইল নম্বরে একটি কল আসে। কলের অপর প্রান্ত থেকে ৬ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবী করা হয়। টাকা না দিলে আঁখিকে মেরে ফেলা হবে বলেও জানানো হয়। এসময় মেয়েকেভিডিও কলে দেখতে চান আলমগীর হোসেন। ভিডিও কলে হাত,পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায়  আঁখিকে দেখানো হয়। 


কাজিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল কুমার দত্ত জানান, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে সোহান ও তাঁর স্ত্রী মিম আক্তারকে গ্রেপ্তার করা হয়। পাশাপাশি অপহৃতাকে উদ্ধার করে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আসামীদেরকে বুধবার বিকেলে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।