বকশীগঞ্জে গাঁজা খাওয়ার কথা বলে অটো ভ্যান চুরি

 : জামালপুরের বকশীগঞ্জে এক অটো ভ্যান চালকের বাড়িতে গাঁজা খাওয়ার কথা বলে অটো ভ্যান চুরি নিয়ে গেছে তিন গাঁজা সেবী। অটো ভ্যানটি ফিরে পেতে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন ওই ভ্যান চালক। তিন দিন ধরে সংসারের আয় বন্ধ থাকায় কষ্টে দিনানিপাত করছেন ওই ভ্যান চালকের পরিবার। 

বকশীগঞ্জে গাঁজা খাওয়ার কথা বলে অটো ভ্যান চুরি



 ১৮ আগস্ট বৃস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে বগারচর ইউনিয়নের গলাকাটি ফইটকার মোড় এলাকায়। 


জানা গেছে, গলাকাটি ফইটকার মোড় এলাকার গোলাপ হোসেনের ছেলে আলম মিয়া পেশায় একজন অটো ভ্যান চালক। সারাদিন ভ্যান চালিয়ে যা আয় করেন তা দিয়ে কোনমতে সংসার চলে তার পরিবারের। আলম মিয়ার একমাত্র আয়ের মাধ্যম ভ্যানটি চুরি হওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছেন তিনি। 


ভ্যান চালক আলম মিয়া জানান, বৃহস্পতিবার রাত ৯ টার দিকে আমি ভ্যান নিয়ে বাড়িতে আসি এবং প্রতিদিনের মত ভ্যান টি রান্না ঘরে রেখে তালাবদ্ধ করে রাখি। রাত সাড়ে ৯ টার দিকে পাশ্ববর্তী উত্তর নয়াপাড়া গ্রামের সাফি মিয়ার ছেলে আমিনুল ইসলাম তাঁর তিন বন্ধু মিলে আমার বাড়িতে এসে আমার রান্নার ঘরের চাবি চায়। আমি চাবি চাওয়ার কারণ জানতে চাইলে তাঁরা জানান আমরা এখানে গাঁজা খাব। এক পর্যায়ে জোড় করে চাবি নিয়ে গিয়ে আমার রান্না ঘরে গাঁজা সেবন করেন তাঁরা। ঘটনাটি কাউকে জানাতে বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করেন আমিনুল ইসলাম। আমি ঘুমিয়ে পড়লে তাঁরা মধ্যরাতে আমার স্ত্রীর কাছে চাবি টি রেখে যায় এবং বাহির থেকে আমার ঘরের দরজার ছিটকিনি বন্ধ করে আমাদের ভেতরে আবদ্ধ করে রাখে। 

পরদিন সকালে আমাদের ডাক চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছিটকিনি খুলে আমাদের উদ্ধার করে। 


এসময় আমরা রান্না ঘরে গিয়ে দেখি আমার ভ্যানটি নেই। 


শনিবার সন্ধ্যায় আমার ভ্যান টি পেতে কামালের বার্ত্তী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অভিযোগ দায়ের করেছি। তিনি আরও জানান, আমার ভ্যানটি চুরির উদ্দেশ্যেই তাঁরা পরিকল্পিতভাবে আমার বাড়িতে গাঁজা সেবন করেছে।


বকশীগঞ্জ থানাধীন কামালের বার্ত্তী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম জানান, বিষয় নিয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।