বকশীগঞ্জে উদ্বোধনের আগেই খসে যাচ্ছে মাদারেরচর সেতুর কার্পেটিং!

 : জামালপুরের বকশীগঞ্জে উদ্বোধনের আগেই কার্পেটিং খসে যেতে শুরু করেছে শতকোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত মাদারেরচর সেতু।

বকশীগঞ্জে উদ্বোধনের আগেই খসে যাচ্ছে মাদারেরচর সেতুর কার্পেটিং!



 ফলে মাদারেরচর সেতুটি উদ্বোধনের আগেই যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ার সম্ভাবণা দেখা দিয়েছে। সেতুর বেশ কয়েকটি স্থানে কার্পেটিং উঠে যাওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন। আতঙ্কের কারণে কম যানচলাচল করছে এই সেতুর ওপর দিয়ে। 


জানা গেছে, ২০১৩ সালের ১০ অক্টোবর জামালপুর জেলার ইসলামপুরের এক জনসভা থেকে বিভিন্ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ওই সভা থেকে বকশীগঞ্জ উপজেলার মেরুরচর ইউনিয়নের পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের ওপর ৫৮৫ মিটার দৈর্ঘ্যরে মাদারেরচর সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়। 

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স চৌধুরী এন্টারপ্রাইজ স্থানীয় প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) এর অর্থায়নে ২০১৬ সালের ১ মার্চ সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু করেন।

২০১৮ সালে ৩০ জুন সেতুটির নির্মাণ কাজ শেষ হয় এবং সেদিনই যানচালাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়। সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হলেও অদ্যাবধি পর্যন্ত সেতুটির উদ্বোধন কার্যক্রম সম্পন্ন হয়নি ।

৪ বছর পার হলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের ফলক বা উদ্বোধনের ফলকের জায়গা এখনো খালি অবস্থায় পড়ে রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, সংশ্লিষ্ট দপ্তরের অবহেলার কারণে সেতুটিতে কোন নাম ফলক বসানো হয়নি। অথচ বর্তমান সরকারের আমলে বৃহৎ উন্নয়নের কাজের মধ্যে একটি হচ্ছে এই সেতু। 

স্থানীয় গাড়ী চালক শহিদুল্লাহ মিয়া জানান, সেতুটির বিভিন্ন স্থানে কার্পেটিং যাওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে সেতু পারাপার করতে হয়। এখনই সংস্কার কাজ করা না হলে ভবিষ্যতে এই সেতুটি আরও ঝুঁিকতে পড়বে। 

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, আমাদের এমপি সাহেবের (জামালপুর-১ আসনের এমপি আবুল কালাম আজাদ) এর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এই সেতু নির্মাণ করা হলেও তাকে দিয়ে এখনো উদ্বোধন করা হয়নি। ৪ বছর যাবত নামের ফলক খালি অবস্থায় পড়ে আছে। কিন্তু এখনো উদ্বোধনের কোন উদ্যোগ নেওয়া হয় নি। 

জামালপুর স্থানীয় প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সায়েদুজ্জামান সাদেক জানান, সেতুটির কার্পেটিং খসে উঠে গেলেও মুল সেতুটি ঝুঁকিতে নেই। তবে সেতুটির উপর ৪০ মিলিমিটার কার্পেটিং করার জন্য অনুমোদন চাওয়া হয়েছে। বকশীগঞ্জ উপজেলার সচেতন মহল অবিলম্বে এই সেতুটির আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন ও কার্পেটিং করার জোড় দাবি জানিয়েছেন। 



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।