SebaBanner

হোম
কোটা সংস্কারের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে উসকে দিচ্ছে মুখোশধারী ছাত্রদল কর্মীরা

সেবা ডেস্ক: -সরকারি চাকরিতে নির্ধারিত কোটা সংস্কারের দাবিতে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে এবং আন্দোলনকারীদের উসকে দিতে এক শ্রেণির নামধারী ছাত্রকে সনাক্ত করা হয়েছে। যাদের প্রত্যেকের মুখ ছিলো কাপড়ে ঢাকা। ওই মুখোশধারীদের পরিচয় সম্বন্ধে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা কিছুই বলতে পারেননি। এমনকি আন্দোলনে নেতৃত্বদানকারী শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বললেও তারা মুখোশধারীদের পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেননি। তবে একটি বিশ্বস্ত সূত্রের বরাতে জানা গেছে, পরিস্থিতি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে বিএনপি কর্তৃক ছাত্রদলের বেশ কিছু নেতাকর্মীদের আন্দোলনকারীদের মধ্যে ছড়িয়ে দেয়া হয় এবং পরিচয় গোপন করতেই মুখ কাপড়ে বাঁধার পরিকল্পনা হয়।
জানা যায়, কোটা সংস্কারের দাবিতে ৮ এপ্রিল আন্দোলন পরিস্থিতি স্বাভাবিকভাবেই গড়াতে থাকে। এসময় আন্দোলনকারীরা রাস্তা অবরোধ করে। সেসময় ভাড়া করা ওই ছদ্মবেশধারীরা অবরোধকারীদের ভিড়ে ঢুকে পড়ে এবং সন্ধ্যা গড়াতে না গড়াতেই আন্দোলন চরম আকার ধারণ করতে থাকে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুর চালায়। এমনকি সেসময় তাদের একাংশ চারুকলায় নববর্ষের আনন্দ শোভাযাত্রার জিনিষপত্র ভেঙে ফেলে। ওইসময় উপস্থিত থাকা ছাত্ররা বিষয়টি লক্ষ্য করলেও উত্তেজিত থাকার কারণে বিষয়টি এড়িয়ে যায়।
এ সম্পর্কে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন ছাত্র বলেন, সন্ধ্যার দিকে বেশ কিছু যুবকদের দেখলাম যারা মুখে কাপড় বেঁধে রাস্তায় নেমেছে এবং তাদের মধ্যে উগ্রতা লক্ষ্য করা যাচ্ছিলো। কিন্তু সেসময় ছাত্ররা স্লোগানের মধ্যে থাকায় তাদেরকে নিয়ে তেমন কিছু ভাবার অবকাশ পায়নি। এমনকি মুখশধারীদের সেসময় পুলিশের দিকে অশ্লীল ভাষার ব্যবহার করতেও শোনা যায় বলে উল্লেখ করে ওই ছাত্র।
একই প্রসঙ্গে আরেকজন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী বলেন, আমরা কয়েকজনকে দেখলাম মুখে কাপড় বেঁধে আছে। দেখাদেখি আমরা কয়েকজনও তাদের অনুকরণ করি। কিন্তু তাদের উগ্রতা নিয়ে তখন আমরাও কিছুটা সংশয়ে পড়ি। আমরা তাৎক্ষণিকভাবে অবাক হয়েছিলাম।
মুখোশধারী ওই যুবকদের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্যবহারকারীরা আন্দোলনকারীদের সজাগ হওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়ে আন্দোলনকারীদের অনেকেই সতর্ক করেন। কেননা একটি আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চক্রান্তে একটি শ্রেণি তৎপর, তা যুবকদের মুখোশ দেখেই বোঝা যায় বলে মনে করেন তারা।

,

Home-About Us-Contact Us-Sitemap-Privacy Policy-Google Search