শাহরাস্তিতে ডিএসএমএফ-গ্রীণের উদ্যোগে ইফতার মাহ্ফিল অনুষ্ঠিত
শাহরাস্তিতে ডিএসএমএফ-গ্রীণের উদ্যোগে ইফতার মাহ্ফিল অনুষ্ঠিত

শাহরাস্তিতে ডিএসএমএফ-গ্রীণের ইফতার মাহ্ফিল ডেসটিনির রফিকুল আমিনের নিঃশ্বর্ত মুক্তির দাবী


শাহরাস্তিতে ডিএসএমএফ-গ্রীণের উদ্যোগে ইফতার মাহ্ফিল অনুষ্ঠিত
রকি সাহাঃ ডেসটিনি ২০০০ লি. এর এমডি ও চেয়ারম্যানের মুক্তি কামনায় ৯ই জুন শনিবার ডেসটিনি সোস্যাল মিডিয়া ফোরাম গ্রীণ শাহরাস্তি থানার উদ্যোগে আলোচনা সভা, দোয়া ও ইফতার মাহ্ফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন,শাহরাস্তি ডেসটিনি সোস্যাল মিডিয়া ফোরাম সদস্য জসিম উদ্দিন।
অনুষ্ঠান এর প্রথমে কুরআন তেলোয়াত করেন আবুল খায়ের মোল্লা সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের আহ্বায়ক রকি সাহা।

প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন ডিএসএমএফ গ্রীণের বিভাগীয় সদস্য ও চাঁদপুর জেলা কো-অডিনেটর আবদুল খালেক মীর। বিশেষ অথিতি ছিলেন কচুয়া থানা আহবায়ক শাহিন আক্তার, বিশেষ অতিথি, প্রবাসী লেখক ও মোহনা টেলিভিশন সৌদি আরব ব্যুরো প্রধান জাহাঙ্গীর আলম , রৌশন আরা রশিদ,আবুল খায়ের মোল্লা, আলি আকবর, নাজমুন নাহার,, ছালেহা বেগম,ছকিনা বেগম, ওয়াহিদ,আজগর, পলাশ ভূমিক, সহ প্রমূখ।

সভাপতির সমাপনী বক্ত্যবের পরে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন ইব্রাহিম খলিল পন্ডিত।
এ সময় উপস্থিত বক্তারা ডেসটিনি ২০০০ লি. এর এমডি, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব দৈনিক ডেসটিনির সম্পাদক ও বৈশাখী টিভির পরিচালক আলহাজ্ব মো. রফিকুল আমিন ও কোম্পানীর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. হোসাইন এর নিঃশ্বর্তে অনতিবিলম্বে মু্ক্তির দাবী জানান।

উপস্থিত বক্তারা আরও বলেন, দীর্ঘ ছয় বছর ধরে ডেসটিনির এমডি ও চেয়াম্যান বিনা বিচারে বন্ধি আছেন। ডেসটিনির বিরুদ্ধে কিছু হলুদ মিডিয়ার অপপ্রচার ও মিথ্যা লেখালেখির ফলে এমডি ও চেয়ারম্যানকে আটক করে রাখা হয়েছে। বিচারের নামে দীর্ঘসূত্রিতার কারন কি জানতে চেয়েছেন ডেসটিনি গ্রুফের সর্বস্তরের ক্রেতাপরিবেশক বৃন্দ। আমরা ডেসটিনিতে ব্যবসা করে নিজেদের বেকারত্ব দূরীকরণের পাশাপাশি দেশের বৃহত্তম বেকার জনগোষ্ঠির কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে সমর্থ হয়েছি। ডেসটিনির বিরুদ্ধে আমাদের কোন অভিযোগ নেই। আমাদের বিনিয়োগ ডেসটিনিতে নিরাপদ। ডেসটিনি আমাদের সাথে কোন প্রতারণা করেনি, বরং হলুদ মিডিয়ার অপপ্রচারে আমরা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি। আমরা রফিকুল আমিন ও হোসাইন এর মুক্তি চাই।


, ,