সাপাহারে সদর রাস্তার দু-পাশে আম কেনা-বেঁচায় জানজটের সৃষ্টি ভোগান্তিতে এলাকাবাসী

সাপাহারে সদর রাস্তার দু-পাশে আম কেনা-বেঁচায় জানজটের সৃষ্টি ভোগান্তিতে এলাকাবাসী
 গোলাপ খন্দকার সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর সাপাহারে সদর রাস্তার দু-পাশে বসেছে আম কেনা-বেঁচার হাট। সড়কে যানবাহন চলাচলে মারাত্মক ব্যাঘাত সৃষ্টি হওয়ায় চলাচলে উপজেলার সাধারণ জনগনের ও পথচারিদের দুর্ভোগে চরম আকার ধারণ করেছে। আমের রাজধানী নওগাঁর সাপাহারে পরিকল্পিতভাবে আম কেনা বেচার জন্য নির্দিষ্ট কোন বাজার গড়ে না ওঠায় চরম জানজটের শিকার হয়ে সাপাহার উপজেলাবাসী এখন নাকাল হয়ে পড়েছে।

উপজেলার রাস্তার দুই পাশে  গড়ে ওঠা আড়ৎ ও রাস্তার উপর আম কেনা-বেঁচা করায় প্রায় প্রতিদিন সকাল থেকে বিকেল ৩ ঘটিকা পর্যন্ত সাপাহার-নওগাঁ সড়কের উপজেলার জিরো পয়েন্ট হতে গোডাউন পাড়া মোড় প্রায় ২ কিলোমিটার পথ জানজটে বন্ধ হয়ে থাকে। প্রতি দিন সাপাহার উপজেলা সহ পোরশা ও পতœীতলা উপজেলার কিছু অংশের শত শত এলাকার হাজার হাজার মন আম সাপাহারে  এনে একটি মাত্র রাস্তায় বিক্রি করতে গিয়ে এই যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

ব্যস্ততম এই রাস্তাটি দিয়ে নজিপুর, মহাদেবপুর, নওগাঁ, রাজশাহী, ঢাকা পথে প্রতিনিয়ত দূরদূরান্তের যানবাহন সকাল বিকাল চলাচল করে কিন্তু রাস্তার দুই পাশে আম বাজার গড়ে ওঠার কারনে প্রতিবছর আম মৌসুমে রাস্তায় জানজটের কারনে অনেক সময় বিশাল জানজটের সৃষ্টি হয়। জানজটের কারনে উপজেলার সাধারণ মানুষের চলাচলে চরম দুর্ভোগ সৃষ্টি হয় এবং স্কুল কলেজেরে ছেলে-মেয়েদের রাস্তা পারাপারে খুব কষ্ট হয়। চাকরীজীবিদের সঠিক সময়ে অফিসে ও ছাত্র-ছাত্রীরা স্কুল কলেজে পৌছানো সম্ভব হয়ে ওঠে না। ঘন্টার পর ঘন্টা রাস্তার উপর রিক্সা, ভ্যান, বাস, ট্রাক, ট্রলি, ভুটভুটি সাইকেল, মোটর সাইকেল দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা করছে নিজ নিজ গন্তব্যস্থলে পৌছানোর জন্য।

সাপাহার-নওগাঁ চলাচলে সাপাহার উপজেলার প্রধান সড়কের দুই পাশে অবাধে আম আড়ৎ গড়ে ওঠায় একাধিক বার দূর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে এবং ছোট বড় কিছু কিছু দূর্ঘটনায় মানুষ পঙ্গুত্ব বরণ করেছে।যা ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়ের জন্য ঝুকিপূর্ণ ।

স্থানীয় প্রশাসন ও ইউনিযন পরিষদ এই আম বাজার সরিয়ে নিয়ে মানুষের মৃত্যু ঝুকি কমিয়ে নিরাপদ করতে পারে। কিন্তু রাস্তার দুই পাশে হরহামেশায় আড়ৎ গড়ে ওটা ও রাস্তার উপর আম কেনা-বেচার কারনে যে হারে জানজট সৃষ্টি হচ্ছে এতে করে উপজেলাবাসী চরম দুর্ভোগে পড়েছে প্রশাসনের জনবল গিয়েও জানজট নিরসন করতে হিমশীম খেয়ে পড়েছে ।

কতৃপক্ষের কাছে এলাকাবাসীর ও অভিজ্ঞ মহলের দাবী আম বাজার টা যদি প্রধান সড়ক বাদ দিয়ে বাজারের বাইরে অন্য কোন এলাকায় গড়ে তোলা হয় তাহলে এতটা দুর্ভোগে পড়তে হবে না। তার সাথে উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের কাছে দাবী জানান অতিঅল্প সময়ের মধ্যে উপজেলায় আম সংরক্ষনাগার স্থাপনের।

,
themeforestthemeforest

ছবি কথা বলে