ভুঁইফোড় শ্রমিক সংগঠন: নেপথ্যে বিএনপি জামায়াতের কুটচাল

ভুঁইফোড় শ্রমিক সংগঠন: নেপথ্যে বিএনপি জামায়াতের কুটচাল
সেবা ডেস্ক: ৩০ জানুয়ারি ভূমিধ্বস বিজয়ের পর আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পরপরই রাজধানীর উত্তরায় সড়ক অবরোধ করে পোশাক শ্রমিকরা। শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি সরকার মেনে নিলেও অদৃশ্য ইশারায় আন্দোলন থেকে সরে আসছেন না পোশাক শ্রমিকরা। বিভিন্ন দায়িত্বশীল সূত্রের খবরে জানা গেছে, নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতেই পোশাক শ্রমিকদের আন্দোলনকে পুঁজি করে দেশব্যাপী বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পায়তারায় মেতেছে বিএনপি-জামায়াত জোট।

রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে বিক্ষোভরত শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ভুঁইফোড় শ্রমিক সংগঠনের ছদ্মবেশে বিএনপি-জামায়াত একটি সঙ্ঘবদ্ধ চক্র গুজব ছড়িয়ে সাধারণ শ্রমিকদের বিভিন্ন মিথ্যা তথ্য ও বিভ্রান্তি ছড়িয়ে সরকারবিরোধী মনোভাব তৈরি করার চক্রান্ত চালাচ্ছে।

জানা গেছে, রাজনৈতিকভাবে প্রত্যাখ্যাত একটি দলের কিছু প্রতিনিধিরা শ্রমিকদের সঙ্গে মিশে দেশকে অচল করে দেয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। এই তৃতীয় পক্ষ খুব তৎপর হয়ে উঠেছে পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ উস্কে দেয়ার জন্য। তবে বিভিন্ন মহল আশা করছে, অচিরেই শ্রমিকরা কুচক্রী মহলের নেতিবাচক উদ্দেশ্য সম্পর্কে অবগত হয়েই দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের কথা চিন্তা করেই শ্রমিকরা নিজ নিজ কর্মস্থলে ফিরে যাবেন।

এর আগে একটি খবর গণমাধ্যমে চাউর হয়েছিলো যে, বিএনপির ব্যাংকখ্যাত নেতা আব্দুল আউয়াল মিন্টুর নির্দেশে বিএনপি ও জামায়াতের তিনজন নেতা পোশাক শ্রমিকদের অর্থ সহায়তা দিয়ে আন্দোলনটিকে দেশব্যাপী ছড়িয়ে দেয়ার জন্য গোপনে কাজ করছেন। এই মিশনের মূল উদ্দেশ্য হলো, দেশকে অস্থিতিশীল করে আন্তর্জাতিক বিশ্বে বাংলাদেশের সুনাম ক্ষুণ্ণ করে আন্তর্জাতিক চাপ সৃষ্টি করে সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরে যেতে বাধ্য করা।

এদিকে শ্রমিক আন্দোলনে একটি স্বার্থান্বেষী মহলের ইন্ধন রয়েছে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এই তৃতীয় পক্ষ কারা? সরকার যদি তাদেরকে চিহ্নিত করে তাদেরকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে তবেই শুধুমাত্র ইতিবাচক অগ্রগতি হবে।
⇘সংবাদদাতা: সেবা ডেস্ক

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Comments Please