বকশীগঞ্জে স্কুল ছাত্রীর বিবাহ বন্ধ, ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা

বকশীগঞ্জে স্কুল ছাত্রীর বিবাহ বন্ধ, ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা
বকশীগঞ্জ প্রতিনিধি: জামালপুরের বকশীগঞ্জে প্রশাসনের তৎপরতায় বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেয়েছে ষষ্ঠ শ্রেণিতে এক স্কুল ছাত্রী।

সে নিলক্ষিয়া আর.জে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী। বাল্য বিবাহের আয়োজন করায় ওই স্কুল ছাত্রীর বড় বোনকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জানা গেছে, নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ পাড়া গ্রামের বাবুুল মিয়ার কন্যা লাইলী আক্তারের (১৩) সঙ্গে ব্যাপারী পাড়া গ্রামের নূর হোসেনের ছেলে কবির হোসেনের বিয়ে ঠিক হয়।

শুক্রবার লাইলী আক্তারের বিয়ের কাজ সম্পন্ন করার কথা ছিল। বিয়ে উপলক্ষে বিকাল থেকে প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন কণে পক্ষ।

খবর পেয়ে সন্ধ্যায় বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেওয়ান মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাঈদা পারভীন বিয়ে বাাড়িতে হানা দিয়ে বাল্য বিবাহ বন্ধ করে দেন। একই সঙ্গে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বাল্য বিবাহের উদ্বুদ্ধ করায় এবং বিয়ের আয়োজন করায়  ওই স্কুল ছাত্রীর বড় বোন কল্পনা বেগমকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও ইউএনও দেওয়ান মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম।

এ সময় বকশীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক শরীফ আহমেদ, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কার্যালয়ের সুপার ভাইজার সুশান্ত কুমার চক্রবর্তী উপস্থিত ছিলেন।


 -সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0 comments

Comments Please