শ্রীবরদীতে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক আটক

শ্রীবরদীতে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক আটক
রেজাঊল করিম, শেরপুর প্রতিনিধি: শেরপুরের শ্রীবরদীতে তের বছর বয়সের এক শিশু ধর্ষণের অভিযোগে ফরিদ মিয়া (৩০) নামে ধর্ষককে গ্রেফতার করে বুধবার কোর্টে সোপর্দ করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটে গত ৬ অক্টোবর দিবাগত রাত ৯টার দিকে উপজেলার উত্তর খড়িয়া গ্রামের এলাচি কাঠ গাছের বাগানে। ধর্ষিতা শিশু ওই গ্রামের আব্দুর হামিদের মেয়ে ও সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী। এ ব্যাপারে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলা হয়েছে।

জানা যায়, উত্তর খড়িয়া গ্রামের আব্দুল হামিদ ঢাকায় চাকরি করেন। তার মেয়ে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী। এ সুযোগে তার প্রতিবেশী মজিবর রহমানের বখাটে ছেলে এক সন্তানের জনক বখাটে ফরিদ মিয়া ওই শিশুকে উত্যক্ত করতো।

গত ৬ অক্টোবর রাত ৯টার দিকে ওই শিশু প্রকৃতির ডাকে ঘরের বাইরে এলে ওৎপেতে থাকা ফরিদ মিয়া তার মুখে গামছা বেঁধে জোড়পূর্বক বাড়ির পাশে এলাচি কাঠ গাছের বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় ওই শিশুর ডাক চিৎকার শোনে আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে গেলে ফরিদ মিয়া পালিয়ে যায়। পরে তারা ওই শিশুকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে উপজেলা সদর হাসপাতালে পরে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। জেলা সদর হাসপাতাল সূত্র জানায়, ওই শিশুকে ধর্ষণের কারনে গুরুতর আহত হয়েছে। এখন তার চিকিৎসা চলছে।

এ ব্যাপারে ওই শিশুর চাচা আব্দুল হানিফ বাদী হয়ে ফরিদ মিয়ার বিরুদ্ধে শ্রীবরদী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বন্দে আলীর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে উত্তর খড়িয়া গ্রাম থেকে ফরিদ মিয়াকে গ্রেফতার করে। বুধবার গ্রেফতারকৃত ফরিদ মিয়াকে কোর্টে সোপর্দ করা হয়েছে। এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার।#


 -সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0 comments

Comments Please