রাজনীতি চলবে কিনা সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের- শিক্ষামন্ত্রী

রাজনীতি চলবে কিনা সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের- শিক্ষামন্ত্রী
সেবা ডেস্ক: বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সাংগঠনিক রাজনীতি চলবে কি না সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

আজ শনিবার সকালে চাঁপদুর সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় তিনি বলেন, যে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো ১৯৭৩ সালের অধ্যাদেশ দিয়ে চলে তারা তাদের অধ্যাদেশ অনুযায়ী এবং বাকি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো তাদের নিজস্ব আইন দ্বারা পরিচালিত হয়। এক্ষেত্রে সাংগঠনিক রাজনীতি চলবে, না বন্ধ হবে তা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিজস্ব সিদ্ধান্তের বিষয়।

দীপু মনি বলেন, বুয়েটে যে ঘটনাটি ঘটেছে সেখানে হয়তো ক্ষমতাকে অপব্যবহার করা হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর আবাসিক হলগুলোতে র‌্যাগিং, বুলিং এর অপসংস্কৃতি ছিলো দীর্ঘদিন, যেটি পৃথিবীর অধিকাংশ দেশেই আছে। র‌্যাগিং বন্ধ করার ক্ষেত্রে বুয়েটের ছাত্র, শিক্ষক, অভিভাবকদের আগে থেকেই যদি উদ্যোগ থাকতো তাহলে এ ঘটনা হয়তো ঘটতো না।

মন্ত্রী বলেন, সব ক্ষেত্রে রাজনীতিকে দোষ দিলে হবে না। রাজনীতি ছাড়া দেশ চলে? আপনি যা কিছু করবেন তা রাজনৈকি সিদ্ধান্তেই চলে। কিন্তু রাজনীতিটা যেন সুষ্ঠু হয়, সুস্থ ধারার হয়। রাজনীতিকে যেন কেউ ক্ষমতার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে কোনো অপসংস্কৃতি করতে না পারে সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ডিসি মো. মাজেদুর রহমান খান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল।

 -সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0 comments

Comments Please