উল্লাপাড়ায় ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে রাতে বসতবাড়ী ভাঙচুর

উল্লাপাড়ায় ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে রাতে বসতবাড়ী ভাঙচুর


উল্লাপাড়া প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া মন্ডলজানি গ্রামের ইউপি সদস্য ( মেম্বর ) মোঃ দেলোয়ার হোসেন মন্ডলের নেতৃত্বে উপজেলার বজ্রাপুর গ্রামের আব্দুর রহমানসহ একাধিক পরিবারের ৫টি বসতবাড়ী ও দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় হামলাকারীদের মারপিটে ৩ নারীসহ ৫ জন গুরুতর আহত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। উল্লাপাড়া মডেল থানা পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থান পরিদর্শন করেছেন।

বজ্রাপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ভাই নির্যাতিত বরাত আলী জানান, গতকাল রাত আটটার আগে বজ্রাপুর বাজারে আমার ভাই আবদুর রহমানের সঙ্গে পাশ্ববর্তী গ্রামের ইউপি সদস্য দেলোয়ার মন্ডলের সদর ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত আওয়ামীলীগের কাউন্সিল নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দেলোয়ার উত্তেজিত হয়ে আমার ভাই রহমানকে এলোপাথাড়িভাবে মারপিট করে। সঙ্গে থাকা লোকজনও রহমানকে বেধরক পেটায়।খবর পেয়ে আব্দুর রহমানের পরিবারের লোকজন বাজারে এসে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। এরপরই ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে তাদের পরিবারের লোকজন জোট বেধে লাঠিসোটা ও দেশিয় অস্ত্র নিয়ে আবারও বজ্রাপুর গ্রামে এসে আব্দুর রহমান ও তার শরিকদের ৫টি বসতবাড়ী ও দোকান ভাংচুর করে লুটপাট চালায়। রহমানের স্ত্রী বুলবুলি অভিযোগ করে জানান, তার বসতবাড়িসহ, তার ভাই বরাত আলী, ইউসুফ, আব্দুল করিম ও ভাতিজা আলম ও আলমাহমুদের ৫টি বসতবাড়ী ভাংচুর করে গরু, ছাগল ও নগদ টাকা লুটপাট চালায়।  এরা বাড়ীর ঘরে থাকা বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাংচুর করার সময় অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। হামলায় আহতরা হলেন- আব্দুর রহমান, হালিমা খাতুন, বুলবুলি খাতুন, নাসরিন, হাসিনা, আফরোজা। গুরুতর আহত আব্দুর রহমানকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকী আহতরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসাধীন রয়েছে। 

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন মন্ডল বলেন তিনি এ ঘটনার সাথে জড়িত নন। 

উল্লাপাড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক কুমার দাস পিপিএম বলেন. রাতেই তিনি ঘটনাস্থান পরিদর্শন করেছেন। এখন পর্যন্ত কোন মানলা হয়নি।


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।