ডিজিটাল নজরদারিতে আসছে গণমাধ্যমের সংবাদ

ডিজিটাল নজরদারিতে আসছে গণমাধ্যমের সংবাদ



সেবা ডেস্ক: ডিজিটাল মনিটরিং বা আধুনিক নজ’রদারিতে আনা হচ্ছে দেশে’র সব গণমাধ্যমে’র সংবাদ গতিধারাকে। রাষ্ট্র জনস্বার্থবিরোধী গুজব, অপপ্রচা’র শনাক্তক’রণ নি’রসনে’র জন্যই এই পদক্ষেপ। 

কা’রণ, বর্তমান সময়ে গণমাধ্যমে বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব বা মিথ্যা তথ্য প্রচারে’র কার্যক্রম ব্যাপকভাবে পরিলক্ষিত হচ্ছে, যা সমাজ রাষ্ট্রে’র জন্য ভয়ঙ্ক’র বিপদ সৃষ্টি ক’রছে। 

গণমাধ্যমে’র সাথে সমন্বয় উন্নতসেবা প্রদান শীর্ষক ৪৮ কোটি টাকা ব্যয়ে’র প্রকল্পে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারে’র মাধ্যমে ক্ষেত্রে নজ’রদারি ফলপ্রসূভাবে করা সম্ভব। 

জন্য সফটওয়্যা’র, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স হার্ডওয়্যা’র স্থাপন করা হবে বলে পরিকল্পনা কমিশনে’র কাছে পাঠানো প্রকল্প প্রস্তাবনা থেকে জানা গেছে।

পরিকল্পনা কমিশনে পাঠানো তথ্য মন্ত্রণালয়ে’র প্রস্তাবনা প্রকল্পে’র প্রেক্ষাপট থেকে জানা গেছে, স’রকারে’র উন্নয়ন কর্মকাণ্ড নীতি কার্যক্রমে’র যাবতীয় সংবাদ প্রচা’র করা এবং গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ সং’রক্ষণ তথ্য অধিদফতরে’র অন্যতম একটি কাজ। 

বর্তমানে দেশে প্রিন্ট মিডিয়া ইলেকট্রনিক মিডিয়া’র সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। 

স’রকারি বেস’রকারি মিলিয়ে ৩৪টি টেলিভিশন চ্যানেলে অনুষ্ঠান সম্প্রচা’র করা হচ্ছে। 

ছাড়া ১২২টি এফএম রেডিও স্টেশন ১৮টি কমিউনিটি রেডিও স্টেশন থেকে অনুষ্ঠান সংবাদ প্রচা’র করা হচ্ছে। সাম্প্রতিক সময়ে অনলাইন মিডিয়া বা সোশ্যাল মিডিয়া’র বিস্তৃতিও ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বর্তমান সময়ে গণমাধ্যমে বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব বা মিথ্যা তথ্য প্রচারে’র কার্যক্রম সমাজ এবং রাষ্ট্রে’র জন্য ভয়ঙ্ক’র বিপদ সৃষ্টি ক’রছে। তবে সনাতনপদ্ধতি বা ম্যানুয়ালি সময় গুজব প্রচা’র শনাক্তক’রণ এবং তা নি’রসন সম্ভব নয়। 

এসব কা’রণেই তথ্য অধিদফতরে’র জন্য তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভ’র আধুনিক সং’রক্ষণ ব্যবস্থা বা ডিজিটাল আর্কাইভিং ব্যবস্থা খুব দ্রুত স্থাপন করা প্রয়োজন।

বর্ণিত এই প্রযুক্তিটি একটি ওয়েব ক্লায়েন্টে’র মাধ্যমে যেকোনো অবস্থান থেকে তথ্যটিকে সহজেই খুঁজে পাবে। আ’র সেই তথ্য একাধিক ডিভাইসে’র মাধ্যমে ব্যবহা’র করা সম্ভব হবে। 

এই আধুনিক প্রযুক্তিটি মূল প্রকাশনা’র প্রতিটি পৃষ্ঠা’র প্রতিটি তথ্য বিষয়কে হুবহু ডিজিটাল অনুলিপি হিসেবে রূপান্ত’র ক’রবে।

ডিজিটাল আর্কাইভিং সফটওয়্যা’রটি মূল সংবাদপত্রে’র চেহারা এবং অনুভূতি ধরে রাখা’র সাথে তা প্রকাশকে’র মূল কপিরাইটটিও সং’রক্ষণ ক’রবে। 

এ’র মাধ্যমে যেকোনো দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক সংবাদ ডিজিটাল পদ্ধতিতে সুচারুরূপে সং’রক্ষণ বা আর্কাইভ করা যাবে। প্রয়োজন মতো তা ব্যবহা’র করা যাবে। 

সব গণমাধ্যমে’র সংবাদ গতিধারা সহজেই মনিটরিং করা যাবে। প্রস্তাবিত প্রকল্পে’র মাধ্যমে বাংলাদেশে’র তথ্য সু’রক্ষা নিশ্চিত করা’র জন্য আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহা’র নিশ্চিত করা যাবে। 

গণমাধ্যমে’র সাথে সমন্বয় উন্নতসেবা প্রদান নামে’র এই প্রকল্পে’র জন্য খ’রচ ধরা হয়েছে ৪৮ কোটি ১৮ লাখ ৯৬ হাজা’র টাকা। অনুমোদনে’র প’র তিন বছরে প্রকল্পটি সমাপ্ত করা’র পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।

প্রকল্পে’র উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে, মিডিয়া আর্কাইভিং অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অ্যানালাইসিস সিস্টেম করা। এখানে সফটওয়্যা’র, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স হার্ডওয়্যা’র স্থাপন করা হবে। 

বাংলাদেশে’র সব সোশ্যাল মিডিয়া অনলাইন, অফলাইন এবং টিভি চ্যানেলভিত্তিক সংবাদগুলো’র নিয়মিত আর্কাইভিং এবং অ্যানালাইসিসে’র মাধ্যমে নিজস্ব মিনি ডাটা সেন্টারে সং’রক্ষণ এবং ‘রক্ষণাবেক্ষণ করা। 

আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহা’র করে নিয়মিত নির্দিষ্ট তথ্যভিত্তিক প্রতিবেদন প্রণয়ন করা। রাষ্ট্র জনস্বার্থবিরোধী গুজব, অপপ্রচা’র শনাক্তক’রণ নি’রসন।

ব্যয় পর্যালোচনায় কমিশন বলছে, আপ্যায়ন খাতে ৩৬ লাখ টাকা, বিদ্যুৎ খাতে ২১ লাখ ৬০ হাজা’র টাকা, পানি লাখ ২০ হাজা’র টাকা, ইন্টা’রনেট ফ্যাক্স খাতে ৩৬ লাখ টাকা, স্টেশনারি খাতে ১০ লাখ ৮০ হাজা’র টাকা, অন্যান্য যন্ত্রপাতি স’রঞ্জমাদি মেরামত ৩৫ লাখ টাকা, অফিস স’রঞ্জামাদি খাতে ১৭ লাখ ৪০ হাজা’র টাকা প্রাক্কলন অস্বাভাবিক বলে প্রতীয়মান হয়েছে।

পরিকল্পনা কমিশনে’র সংশ্লিষ্ট বিভাগে’র সিনিয়’র সহকারী প্রধান ওয়াহিদা খান কার্যপত্রে পর্যালোচনায় বলেছেন, প্রকল্পে’র আওতায় কোনো গাড়ি কেনা হবে না। তবে দুটি গাড়ি ভাড়া করা হবে। যা’র জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ৯০ লাখ টাকা। গাড়ি না কিনলেও প্রকল্পে’র আওতায় গাড়ি’র জন্য পেট্রল, ওয়েল, লুব্রিকেন্ট খাতে ব্যয় প্রাক্কলন করা হয়েছে।

খাতটি’র কোনো প্রয়োজন নেই। তাই এটিকে বাদ দিতে বলা হয়েছে। প্রকল্পে প্রায় ৪৩ কোটি টাকা বা বেশি’র ভাগই খ’রচ হবে কারিগরি যন্ত্রপাতি ক্রয়ে। তাই এসব আইটেমগুলো’র ব্যয় প্রাক্কলনে’র জন্য একটি কারিগরি কমিটি গঠন করা যেতে পারে বলে কমিশন থেকে মতামত দেয়া হয়েছে।  


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।