উল্লাপাড়ার কাওয়াক ৩০ শয্যা হাসপাতালের স্বাস্থ্য সেবা ভেঙে পড়ার অভিযোগ

উল্লাপাড়ার কাওয়াক ৩০ শয্যা হাসপাতালের স্বাস্থ্য সেবা ভেঙে পড়ার অভিযোগ



 : সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া পৌর শহরের কাওয়াক ৩০ শয্যা হাসপাতালের স্বাস্থ্য সেবা ভেঙে পড়ার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার দুপুরে হৃদরোগে আক্রান্ত এক রোগী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আসলে জরুরি বিভাগে কোন ডাক্তার ও ওয়ার্ডবয় কেহই উপস্থিত ছিলেন না বলে অভিযোগ করেন রোগীর স্বজন ও এলাকাবাসী। পরে পাশে থাকা মাইক্রো গাড়ী চালকেরা রোগীকে হাসপাতালে নামিয়ে দায়িত্বরত কাউকে না পেয়ে  তীব্র প্রতিবাদ জানান তারা। 


কাওয়াক গ্রামের বাসিন্দা বরাত আলী জানান, নানাবিধ অনিয়মের কারণে কাওয়াক ৩০ শয্যা হাসপাতালের স্বাস্থ্য সেবা ভেঙে পড়েছে। হাসপাতালে কর্মরত অধিকাংশ কর্মকর্তা ও  কর্মচারীরা সময় মতো অফিসে আসেন না বলে তিনি অভিযোগ করেন। 

তিনি আরো জানান,  হাসপাতালে রোগী এলেই ভর্তি না করে অন্যত্র রেফার্ড করে পাঠিয়ে দেন অধিকাংশ রোগীকে। 

সরকারি ঔষধ রোগীদের না দিয়ে ওয়ার্ড ইনচার্জসহ কর্মরতদের নিজ নিজ স্বজনদের মধ্যে প্রদান করেন বলে অভিযোগ করেন। 

প্রায় সময়ই রোগীকে সেবা দেন পরিচ্ছন্ন কর্মীরা। সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন না করায় হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ড পরিস্কার পরিচ্ছনের অভাবে দূগন্ধ হয়ে পড়ার অভিযোগ রয়েছে এই হাসপাতালে। এ্যাম্বুলেন্স চালক জিন্নাহ ও মালীর বিরুদ্ধে নানাবিধ অভিযোগ করেন উপস্থিত চালকেরা। 

হাসপাতাল মাঠে কর্মচারিরা কমিশন খেয়ে পাবলিকের ধান শষ্য শুকানোর সুযোগ দেন বলে অভিযোগ করেন তারা। মাঠে এলাকাবাসীর গরু, ছাগল অবাধে বিচরণ করে বলেও তারা অভিযোগ করেন।


হাসপাতালে আসা রোগী ইমান হোসেন, আরজিনা ও জোসনা খাতুন অভিযোগ করে করে বলেন, হাসপাতালে চিকিৎসা ও সেবার মান নাই বললেই চলে। নানাবিধ অনিয়ম ও সমস্যা বিরাজ করছে এই হাসপাতালে।


হাসপাতালের ওয়ার্ড ইনচার্জ নাজিফা জাহান সকল অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, কিছু সুবিধাভোগী সুবিধা নিতে না পারায় তারাই এ ধরনের অভিযোগ করে যাচ্ছেন।


হাসপাতালের ইনচার্জ ডাঃ শওকত হোসেন জানান, পাশের মাইক্রো স্টার্ন্ডের কিছু চালকেরা হাসপাতালের ইমারজেন্সি বিভাগে রোগী ও তার স্বজনদের সাথে প্রবেশ করে দায়িত্বরত ডাক্তার ও ওয়ার্ডবয়দের সাথে আপত্তিকর কথাবার্তা ও আচরণ করার এমন অভিযোগ করেন তিনি। 


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।