নন্দীগ্রামে স্বামীর সঙ্গে টাকা নিয়ে ঝগড়ায় স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

নন্দীগ্রামে স্বামীর সঙ্গে টাকা নিয়ে ঝগড়ায় স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’



 : বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার পল্লীতে স্বামীর সঙ্গে টাকা নিয়ে ঝগড়ায় স্ত্রী রাশেদা বিবি (৩৫) নামের গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় রাশেদার বাবা আছামুদ্দিন বাদী হয়ে নন্দীগ্রাম থানায় জামাইয়ের নামে মামলা করেছেন। 


শুক্রবার (১ এপ্রিল) সকালে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ার হোসেন এতথ্য নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ ওই গৃহবধুর স্বামী বেলাল হোসেনকে (৪৫) গ্রেফতার করেছে। সে উপজেলার থালতা গ্রামের খলিল উদ্দিনের ছেলে।


পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানায়, দশ বছর আগে নন্দীগ্রাম উপজেলার থালতা গ্রামের বেলাল হোসেনের সাথে দুপচাঁচিয়া উপজেলার নুরপুর গ্রামের রাশেদা বিবির বিয়ে হয়। তাদের দাম্পত্য সংসারে ৯ বছরের এক ছেলে ও ৪ বছরের এক মেয়ে রয়েছে। সংসার জীবন চলাকালে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায় ঝগড়া লেগেই থাকতো। এরমধ্যে জামাই বেলাল হোসেন গত ৬ মাস আগে শ^শুর আছামুদ্দিনকে এক লাখ টাকা ধার দেয়। সেই ধারের ৭০ হাজার টাকা পরিশোধও করে শ^শুর। তবে বাকী ৩০ হাজার টাকাই মেয়ের জীবনে কাল হয়। এমতাবস্থায় গত বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে শ^শুরের কাছ থেকে পাওনা ৩০ হাজার টাকা নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। একপর্যায়ে স্ত্রীকে অকথ্য ভাষায় গালাগালিসহ মারধর করে এবং মরার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায় স্বামী বেলাল হোসেন। এই রাগ-অভিমান সইতে না পেরে সবার অজান্তে রাশেদা বিবি বিষপান করে। পরে স্থানীয়রা জানতে পেরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়। পুলিশ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এঘটনায় আত্মহত্যা প্ররোচণা অভিযোগ এনে রাশেদার বাবা আছামুদ্দিন বাদী হয়ে নন্দীগ্রাম থানায় জামাইয়ের নামে মামলা করে। সেই মামলায় পুলিশ বেলাল হোসেনকে গ্রেপ্তার করেন। নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, আত্মহত্যা প্ররোচণা মামলায় বেলাল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।