বগুড়া-নাটোর মহাসড়কে ট্রাক পার্কিং দেখলেই মামলা

 : বগুড়া-নাটোর মহাসড়কে ট্রাক পার্কিং দেখামাত্র মামলা দিচ্ছে কুন্দারহাট হাইওয়ে পুলিশ। নন্দীগ্রাম সদরে মহাসড়কের পাশে স্থাপন করা হোটেলের সাইনবোর্ডসহ গাছের গুড়ি সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। 

বগুড়া-নাটোর মহাসড়কে ট্রাক পার্কিং দেখলেই মামলা



 সোমবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত নন্দীগ্রাম উপজেলার সাংবাদিকদের সঙ্গে নিয়ে মহাসড়কে মহড়া দেন হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম। পৌর সদরের কৈগাড়ী মোড় হতে ওমরপুর বাজার পর্যন্ত মহাসড়কের পাশে রাখা গাছের গুড়ি সরান পুলিশ ও সাংবাদিকরা। 

এসময় কৈগাড়ী মোড়, সেলিনা ফিলিং স্টেশন এবং ওমরপুর বাজার এলাকায় মহাসড়কে ট্রাক পার্কিং করে রাখা দেখামাত্র ৫টি ট্রাকে মামলা দেয় পুলিশ। সড়ক দুর্ঘটনা রোধে বাসস্ট্যান্ডে সচেতনতামূলক পথসভা করা হয়। হাইওয়ে থানার ওসি শহিদুল ইসলাম বলেন, মহাসড়কে ট্রাক পার্কিং দেখলেই মামলা দেওয়া হবে। মহাসড়কের ওপর ট্রাক বা যানবাহন পার্কিং করলে এবং গাছের গুড়ি রাখলে অসাবধানতায় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। 

সড়কের ওপর কোনো যানবাহন পার্কিং বা যাত্রী ওঠানামা করানো যাবে না। চালক, যাত্রী, পথচারি সবাইকে সচেতন হতে হবে। থ্রি হুইলার সড়কে যেন না ওঠে। মহাসড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে যা যা করণীয় সবাইকে সঙ্গে নিয়েই করব। সড়কের পাশে গাছের গুড়ি রেখে যারা ব্যবসা করছেন, তাদের শেষবার সতর্ক করছি। সময় থাকতে সরিয়ে নেন। ওসি বলেন, আমাদের সঙ্গে সাংবাদিকরাও মহাসড়কের পাশে রাখা গাছের গুড়ি সরিয়েছেন।

 

হাইওয়ে পুলিশের অভিযান ও সচেতনতামূলক কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন বুড়ইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জিয়াউর রহমান, নন্দীগ্রাম উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি ও পৌর কমিউনিটি পুলিশিং সভাপতি মো. বকুল হোসেন, সিনিয়র সাংবাদিক মো. নাজির হোসেন, কুন্দারহাট হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক সুলতান মাহমুদ, প্রেস ক্লাবের দপ্তর সম্পাদক নজরুল ইসলাম দয়া, সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম জুয়েল, রাজু আহমেদ লিটন, তানসেন আলী মন্টু, রাসেল মাহমুদ, আব্দুল আহাদ, মিজানুর রহমান মুকুল, এমদাদুল হক, হাফছা পারভীন প্রমুখ। 



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।