SebaBanner

আজ*

হোম
শিক্ষকদের এমপিওভুক্তি আন্দোলনকে অন্য খাতে নেওয়ার পাঁয়তারা

শিক্ষকদের এমপিওভুক্তি আন্দোলনকে অন্য খাতে নেওয়ার পাঁয়তারা

সেবা ডেস্ক: গত ১০ জুন থেকে চলমান বেসরকারী শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার পাঁয়তারা করে চলেছে কয়েকটি কু-চক্রী মহল।

বেসরকারী শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির দাবিতে নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা রাজপথে আন্দোলন কর্মসূচি চালিয়ে আসছেন। সে অনুযায়ী ৭ আগষ্ট শনিবার ২৮তম দিন এবং আমরণ অনশন কর্মসূচির ১৩তম দিন। দেশের চলমান পরিস্থিতিকে অস্থির করতে এবং অরাজকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে এমপিওভুক্তির আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করে ফায়দা হাসিল করতে চায় একটি কুচক্রী মহল। বেসরকারী শিক্ষকদের এই আন্দোলনকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ভিন্ন দিকে।

গোপন এক সূত্রে জানা যায়, আসন্ন জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকারকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলার জন্য এবং সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্য করতে মূলত বিএনপি-জামায়াত অনুসারী শিক্ষকেরা এই আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। সরকার বেসরকারী শিক্ষকদের এমপিওভুক্তি করে তাদের দাবী মেনে নিলেও বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে শিক্ষকদের ভুল বুঝিয়ে রাজপথে এনে আন্দোলন করতে চায় বিএনপি-জামায়াত। এই আন্দোলনের মাধ্যমে অরাজকতা সৃষ্টি করে সরকারকে বিব্রত করে ক্ষমতায় আসার পাঁয়তারা করছে তারা।

অনশনে অংশ নেয়া এক শিক্ষক বলেন, নিজেদের দাবী আদায়ের জন্য এই আন্দোলনে এসেছিলাম। কিন্তু এখন দেখি আন্দোলনের আড়ালে রয়েছে ভিন্ন চক্রান্ত। আমাদের দাবীকে পুঁজি করে একটি মহল আন্দোলন করছে সরকারকে বিব্রত করতে। তাই আমি আন্দোলন ছেড়ে চলে এসেছি।

বিএনপি তাদের দলীয় বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে রাজপথের আন্দোলনে জনসমর্থন আদায়ে ব্যর্থ হয়ে অনেক দিন ধরেই ভিন্ন পন্থায় রাজপথে আন্দোলন গড়ে তোলার পাঁয়তারা করে আসছে। সর্বশেষ কোটা সংস্কার আন্দোলনকেও ইন্ধন দিয়ে সরকার বিরোধী আন্দোলনে রূপ দেয়ার চেষ্টা করেছিল। সেখানে ব্যর্থ হয়ে এবার বিএনপির নজর পড়েছে রাজধানীতে চলমান বেসরকারি শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির দাবির আন্দোলনে।




, , ,