সরকারের হস্তক্ষেপে বকশীগঞ্জে কর্মসংস্থানের সুযোগ পেয়েছেন ১৭ শ যুবক-যুবতী

সরকারের হস্তক্ষেপে বকশীগঞ্জে কর্মসংস্থানের সুযোগ পেয়েছেন ১৭ শ যুবক-যুবতী

জি এম ফাতিউল হাফিজ বাবু: বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালের নির্বাচনের আগে নির্বাচনী ইশেতেহারে ঘোষনা দেন প্রত্যেক ঘরে ঘরে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে।

প্রধানমন্ত্রীর সেই ঘোষণা বাস্তবায়ন হচ্ছে জামালপুর জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলায়। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনার পর দেশের কয়েকটি জেলার বিভিন্ন উপজেলাতে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।
তেমনি বকশীগঞ্জ উপজেলাতেও যুবক-যুবতীদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, যুব ও ক্রীড়া অধিদপ্তরের আওতায় বকশীগঞ্জ উপজেলায় ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির কার্যক্রম চলছে । এই কর্মসূচির আওতায় উপজেলার বেকার যুবক-যুবতীরা তাদের কর্মসংস্থানের সুযোগ পেয়েছেন। ২৪ বছর থেকে ৩৫ বছর বয়সি যুব শ্রেণি তাদের দায়িত্ব পালন করছেন। এটি একটি সরকারের মহৎ উদ্যোগ বলে মনে করেন এসব যুবক যুবতীরা। গত ১ জানুয়ারি থেকে ন্যাশনাাল সার্ভিসের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

এই উপজেলায় ১ হাজার ৭০০ যুবক-যুবতী এই কর্মসূচির আওতায় কাজ করছেন। উপজেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য বিভাগ, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ, কমিউনিটি ক্লিনিক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কৃষি বিভাগে তাদের সংযুক্তি করা হয়েছে। প্রতিটি যুবক ও যুবতী প্রতি মাসে ৬ হাজার টাকা সম্মানী পেয়ে থাকেন। এর মাধ্যমে বেকার সমস্যার সমাধান হয়েছে। এর আগে প্রতিটি যুবক-যুবতীকে তিন মাস ব্যাপি বিভিন্ন বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ ও দক্ষতা উন্নয়নে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

তারা প্রশিক্ষণ পেয়ে মাঠে করছেন। এতে করে একদিকে যেমন কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হয়েছে অপরদিকে আয় বর্ধক কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন হচ্ছে। বর্তমান সরকারের উদ্দেশ্য হচ্ছে মানুষকে কর্মমুখি করা ।

তাই তারা বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নেয়। তবে ন্যাশনাল সার্ভিসের অন্তর্ভুক্ত এসব যুবক-যুবতীরা স্থায়ী ভাবে নিয়োগের দাবি করেছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার সুলতান মাহমুদ জানান, স্থানীয় যুব সম্প্রদায়কে কর্মমুখি ও কাজের সুযোগ তৈরি করে দিতে তাদের ন্যাশনাল সার্ভিসের আওতায় আনা হয়েছে।
তারা দুই বছর এই কর্মসূচিতে থাকবেন এবং সরকারের সুবিধা ভোগ করবেন।


⇘সংবাদদাতা: জি এম ফাতিউল হাফিজ বাবু

,

0 comments

Comments Please

themeforestthemeforest

ছবি কথা বলে