কাহারঘোনা সংঘরাজ অভয়তিষ্য কঠিন চীবর দান উৎসব সম্পন্ন

কাহারঘোনা সংঘরাজ অভয়তিষ্য কঠিন চীবর দান উৎসব সম্পন্ন
কঠিন চীবর দানে বক্তব্য রাখছেন বাশঁখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার

কাহারঘোনা সংঘরাজ অভয়তিষ্য কঠিন চীবর দান উৎসব সম্পন্ন: বক্তারা বলেন- ধর্মীয় রীতি নীতি মেনে চললে সমাজে কোন অশান্তি থাকে না



শিব্বির আহমদ রানা, বাঁশখালী সংবাদদাতা : চট্টগ্রামের বাশঁখালীর ৬টি বৌদ্ধ মন্দিরে কঠিন চীবর দানের প্রথম দিনের কঠিন চীবর দান উৎসব সোমবার (২৯ অক্টোবর) কাহারঘোনা মিনজীরিতলা সংঘরাজ অভয়তিষ্য পারিজাত আরাম বিহারে অনুষ্টিত হয়।

দিন ব্যাপী অনুষ্টান সূচির মধ্যে ছিল সকালে প্রয়াত সংঘপুরুষদের স্মরণে অষ্টপরিস্কার সহ সংঘদান। বিকালে যথারীতি সদ্ধর্মসভা শীলঘাটা পরিনির্বাণ বিহারের অধ্যক্ষ বিদর্শন সাধক রত্নপ্রিয় মহাস্থ’বিরের এর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন লক্ষনেরখীল জ্ঞানোদয় বিহারের অধ্যক্ষ ধর্মদর্শী মহাস্থ’বির। সংবর্ধেয় অতিথি ছিলেন বাশঁখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার। অনুষ্টানে সর্দ্ধমদেশক ছিলেন বাশঁখালী পৌরসভা সদরস্ত’ জলদী র্ধমরত্ন বিহার এর অধ্যক্ষ ধর্মপাল মহাস্থ’বির, বাঁশখালী বৌদ্ধ সমিতির সভাপতি শিক্ষাবিদ রাহুলপ্রিয় মহাস্থ’বির, দক্ষিণ জলদী বিবেকারাম বিহার এর অধ্যক্ষ তিলোকানন্দ মহাস্থ’বির, বাঁশখালী কেন্দ্রীয শীলকূপ চৈত্য বিহার এর অধ্যক্ষ দেবমিত্র মহাস্থ’বির।

অনুষ্টানে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন কাহারঘোনা মিনজীরিতলা সংঘরাজ অভয়তিষ্য পারিজাত আরাম বিহার এর অধ্যক্ষ মৈত্রীজিৎ থের। প্রধান ধর্মালোচক ছিলেন পূর্নাচার আর্ন্তজাতিক বৌদ্ধ বিহারের আবাসিক প্রধান এস. জ্ঞানমিত্র ভিক্ষু। বাঁশখালী বৌদ্ধ সমিতির সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক কল্যাণ বড়ুয়া এর সঞ্চালনে আরো ধর্মালোচনা করেন রেবত ভিক্ষু, শাসনপ্রিয় ভিক্ষু, সত্যপ্রিয় বড়ুয়া, মিলন বড়ুয়া, পুলিন বড়ুয়া , প্রদর্শন বড়ুয়া, রাসেল বড়ুয়া, সুবল বড়ুয়া, মিল্টন বড়ুয়া, ডালিম বড়ুয়া প্রমুখ।

অনুষ্টানে বাশঁখালী বৌদ্ধ সমিতির সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক কল্যাণ বড়ুয়া সিপিপি কর্তৃক উপজেলার শ্রেষ্ট স্বেচ্ছাসেবক নির্বাচিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত পুরস্কার লাভ করায় গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে সন্মাননা প্রদান করা হয়। এছাড়া শিক্ষামুলক ধর্মীয় প্রতিযোগিতায় কৃর্তিত্ব অর্জনকারী ১০ জনকে ও সন্মাননা প্রদান করা হয।

সভায় বক্তারা বলেন যারা ধর্মীয় রীতি নীতি মেনে চলে তারা কখনও বিপথে চলে না। এবং তারা সব সময় সন্মানের সহিত জীবন ধারন করে । কোন ধর্মে মিথ্যা ও ব্যবিচারের স্থান নেই, তাই প্রত্যেকের ধর্মীয় বিধান মেনে চলা উচিত। এদিকে আগামী কাল ৩০ অক্টোবর মঙ্গলবার দক্ষিণ জলদী বিবেকারাম বিহার ,৩১ অক্টোবর বুধবার- বাঁশখালী কেন্দ্রীয শীলকূপ চৈত্য বিহার, ১ নভেম্বর বৃহস্প‌তিবার বাশঁখালী পৌরসভা সদরস্ত জলদী ধর্মরত্ন বিহার, ২ নভেম্বর শুক্রবার- শীলকূপ জ্ঞানোদয় বিহার। ৩ নভেম্বর শ‌নিবার- পুইঁছডড়ি চন্দ্রজ্যোতি বিহারে কঠিন চীবর দান অনুষ্টিত হবে। এ পূর্ণ্যময় অনুষ্টানে সকলকে অংশ গ্রহন করার জন্য বাশঁখালী বৌদ্ধ সমিতির পক্ষ থেকে সকলের প্রতি আহবান জানান।


⇘সংবাদদাতা: শিব্বির আহমদ রানা

, , ,

0 comments

Comments Please

themeforestthemeforest

ছবি কথা বলে