মন্দ মেয়ে রোণ্ডা রাউজির উপাখ্যান

মন্দ মেয়ে রোণ্ডা রাউজির উপাখ্যান
সেবা ডেস্ক: মেয়ে বললেই আমাদের চোখে ভেসে উঠে একজন দুর্বল অসহায় ব্যক্তি, যে পুরুষদের দ্বারা নির্যাতিত হয়ে তার কাছেই নিরাপত্তার আশা করে। কিন্তু আজকালের মেয়েদের আপনি ঠিক এভাবে সংজ্ঞায়িত করতে পারবেন না।

আজকের যুগে তারা আর অবলা নয়, তাদের উপর করা সকল অত্যাচারের উপযুক্ত জবাব দিতে জানে তারা। ক্ষেত্র বিশেষে তো তারা কখনো কখনো পুরুষদেরকেও ছাড়িয়ে যায়। এমনি একজন হল রোণ্ডা রাউজি, পুরো নাম রোণ্ডা জেন রাউজি।  যিনি একাধারে মিক্সড মার্শাল আর্টিস্ট, অভিনেত্রী এবং ডাব্লিউডাব্লিউই সুপারস্টার।
রোণ্ডা রাউজির জন্ম আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যর রিভারসাইড কাউন্টিতে। তিন বোনের মধ্যে সে সবার ছোট। মা অ্যান মারিয়া দো মারস নিজ সময়ে ছিলেন স্বনামধন্য জুডোকা (জুডো খেলোয়াড়)। তাই হয়ত জুডোর প্রতি তার রয়েছে আলাদা টান। আমেরিকান নারী হিসেবে রোণ্ডা ২০০৮ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে জুডোতে পদক জয়লাভ করেন। 

২০১০ সালে রোণ্ডা মিক্সড মার্শাল আর্টের ভুবনে পা রাখে। ইতোমধ্যে নিজেকে মিক্সড মার্শাল আর্টের জীবন্ত কিংবদন্তী হিসেবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছে। সে সাবেক ইউএফসি নারী ব্যান্টামওয়েট চ্যাম্পিয়ন এবং সর্বশেষ স্ট্রাইকফোর্স নারী ব্যান্টামওয়েট চ্যাম্পিয়ন। 

সে টানা ১২টি মিক্সড মার্শাল আর্টস ম্যাচে অপরাজিত ছিল, এর মধ্যে ৬টি ছিল ইউএফসিতে। হলি হোমের কাছে হেরে ইউএফসিতে তার প্রথম হারের স্বাদ গ্রহণ করে। রোণ্ডা ঐ ১২টি খেলার ১১টিতে জয়লাভ করেন প্রথম রাউন্ডে, এর মধ্যে ৯টি ছিল আর্মবারের মাধ্যমে।

সোনালী পর্দাতেও তার বেশ বড় অভিষেক হয়েছ। সিলভেস্টার স্ট্যালোন, জেসন স্টেথাম, আন্তোনিও বান্দেরাসের মতো বড় তারকাদের সাথে তাকে The Expendables 3তে দেখা গেছে। এরপর জনপ্রিয় The Fast and the Furious সিরিজের সপ্তম সিকুয়েল Furious 7 এ তাকে ছোট একটি চরিত্রে দেখা যায়। সর্বশেষ তাকে দেখা যায় ২০১৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একশন থ্রিলার মুভি Mile 22।

রোণ্ডা পেশাদার রেসলার হিসেবে WWE’তে নাম লিখিয়েছে। চলতি বছর WWE এর সবচেয়ে বড় বাৎসরিক পিপিভি WrestleMania 31’তে অভিষেক ম্যাচে সুপারস্টার কার্ট এংগেলের সাথে জুটি বেঁধে WWE এর অন্যতম জনপ্রিয় ও সফল সুপারস্টার ত্রিপল এইচ ও তার স্ত্রী এবং WWE মালিক কন্যা স্টেফানি জুটিকে পরাজিত করে। আগষ্ট এ সামারস্ল্যামে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন এলেক্সা ব্লিজকে হারিয়ে ডাব্লিউডাব্লিউই র উইম্যান চ্যাম্পিয়ন হয়। আগামী ১৬ ডিসেম্বর ক্যালিফোর্নিয়ার স্যান জোন্স এরেনাতে অনুষ্ঠিত পিপিভি TLC: Tables, Ladders & Chairs’এ কিংবদন্তী রেসলার রকের কাজিন নায়া জ্যাক্সের মোকাবেলা করবে।

মে ২০১৫ সালে দুইটি ম্যাগাজিন রোণ্ডাকে সবচেয়ে "প্রভাবশালী" সক্রিয় ক্রীড়াবিদ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। একই বছরের সেপ্টেম্বরে ইএসপিএনের অনলাইন ভিত্তিক একটি ভোটে ভোটাররা তাকে "সর্বকালের শ্রেষ্ঠ নারী ক্রীড়াবিদ" নির্বাচিত করে। ২০১৫ সালে গুগলে সবচেয়ে বেশি খোঁজা মানুষদের মধ্যে তৃতীয় স্থান অধিকার করে রোণ্ডা

মিক্সড মার্শাল আর্টে নিজেকে কিংবদন্তী হিসেবে প্রতিষ্ঠা করলেও সিনেমা ও রেসলিংএ নিজের সামর্থ্য প্রমাণের আরো সময় রয়েছে। দেখা যাক কতদুর যেতে পারে সে।

⇘সংবাদদাতা: সেবা ডেস্ক

, , ,

0 comments

Comments Please

themeforestthemeforest

ছবি কথা বলে