রৌমারীতে ভাইয়ের জমি জোরপূর্বক দখল করলো ভাই

রৌমারীতে ভাইয়ের জমি জোরপূর্বক দখল করলো ভাই

রৌমারী প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলায় রাতের আধারে জোরপূর্বক জমি দখল করলো ভাইয়েরা। শুধু তাই নয় ওই জমিতে ইতোমধ্যে টিনশেড ঘরও উঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ১৩ জুন মাহফুজল হক বাদী হয়ে রৌমারী থানায় ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার রৌমারী সদর ইউনিয়নের মহিলা কলেজপাড়া গ্রামে।
২৫ জুন (বৃহস্পতিবার) সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে মৃত-জালাল উদ্দিনের কলেজপাড়ায় মোট ১একর ৪০ শতাংশ জমি রয়েছে। তিনি মারা যাওয়ার পর ওয়ারিশ সুত্রে এই জমির মালিক হন ছেলে জহির উদ্দিন, মাহফুজল হক, শহিদুল ইসলাম ও খোকন মিয়া। তারা প্রত্যেকেই ২১ শতাংশ করে জমির অংশ পায়। মাহফুজল হক তার অংশে গত ৬ বছর আগে মেয়ে ফরিদা খাতুনকে থাকার জন্য বসতবাড়ি করে দেন। মেয়ে ও জামাই সুখে সংসার করা অবস্থায় মাহফুজলের অন্য ভাইয়েরা মেয়েকে হুমকি ধামকি করে থাকার ঘরে তালা লাগিয়ে তাদেরকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়। এ ঘটনায় মাহফুজল প্রতিবাদ করতে গেলে তার অন্য ভাই জহির উদ্দিন, শহিদুল ইসলাম ও খোকন মিয়া দলবদ্ধ হয়ে হামলা করতে যায়। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে আসে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এমতাবস্থায় গত ২ সপ্তাহ আগে রাতের বেলায় ওই তিন ভাই মিলে লাঠিসোঠা ও দেশিয় ধারালো অস্ত্রেসজ্জিত হয়ে জোরপূর্বক জমি দখল করে এবং ঐ রাতেই ঘর উঠায়।
মাহফুজল হকের ছেলে শেখ ফরিদ (বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের আশরাফুল হক হল ইউনিটের উপধর্ম বিষয়ক সম্পাদক) অভিযোগ করে বলেন, আমার দাদা মারা যাওয়ার পর তার নিজ নামীয় জমিটি আমার বাবা ও চাচারা পারিবারিক ভাবে সমহারে বন্টন করে নেয়। আমার বাবার অংশে বোনকে বসতবাড়ি করে থাকতে দেওয়া হয়। সেই অংশটুকু বোনকে তাড়িয়ে দিয়ে অবৈধ ভাবে আসবাবপত্রসহ ঘরে তালা দেয় এবং বেদখল করে নেয়।
জমির মালিক মাহফুজল হক বলেন, আমি অসুস্থ মানুষ, পুরাতন বাড়ি জিগ্নিকান্দিতে থাকি। পৈতৃক সুত্রে পাওয়া কলেজপাড়ার জমিটি আমরা ৪ ভাই ভাগ করে নিই। আমার অংশে মেয়ে জামাইকে থাকতে দেই। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার ভাইয়েরা মেয়েকে তাড়িয়ে দিয়ে ঘর, জিনিসপত্রসহ জমিটি দখল করে নেয়।
এ বিষয়ে বিবাদী খোকন মিয়া বলেন, আমার ভাইয়ের অংশ আছে। তবে ভুল বুঝাবুঝির কারনে একটু সমস্যা হয়েছে এবং ২/১ দিনের মধ্যে বসে সমাধান করে নিব।

এ বিষয়ে রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ আবু মোহাম্মদ দিলওয়ার হাসান ইনাম জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


ভিডিও নিউজ


-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন


,

0 comments

Comments Please

আপনার মূল্যবান মতামতের জন্য সেবা হট নিউজ পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

সেবা হট নিউজ : সত্য প্রকাশে আপোষহীন