মেলান্দহে ফষ্টিনষ্টিকালে কাশেম মেম্বারের ছেলে রিপনকে গণধোলাই

মেলান্দহে ফষ্টিনষ্টিকালে কাশেম মেম্বারের ছেলে রিপনকে গণধোলাই


জামালপুর সংবাদদাতা : জামালপুরের মেলান্দহে ফষ্টিনষ্টিকালে আবুল কাশেম মেম্বারের ছেলে রিপন (২৫)কে গণধোলাই দিয়ে আটকে করেছে এলাকাবাসি। 

ঘটনাটি ঘটেছে ১১ মার্চ দিবাগত মধ্যরাতে। পরদিন দুপুরের দিকে খবর পেয়ে পুলিশের সহায়তায় আটককৃত রিপনকে উদ্ধার করা হয়। 

জানা গেছে, ঝাউগড়া ইউনিয়নের ইন্দ্রবাড়ি গ্রামের আবুল কাশেম মেম্বারের ছেলে রিপনের সাথে মানকি গ্রামের জনৈক গৃহবধুর সাথে প্রণয় চলে আসছিল। 

এ নিয়ে সামাজিকভাবে কয়েকবার সতর্ক করা হয়। প্রতিদিনের ন্যায় ঘটনার রাত ১২টার দিকে ওই গৃহবধুর ঘরে প্রবেশ করে রিপন। 

এ সময় পাড়াপড়শিরা রিপনকে আটক শেষে গণধোলাই দিয়ে আটকে রাখে। রাতেই ঘটনাটি দ্রæত জানাজানি হলে জনতার ভীড় জমে। 

পরদিন ১১মার্চ সকাল থেকেই রিপনের স্বজনরা উদ্ধারের জন্য তৎপরতা চালায়। অদ্ভুত পরিস্থিতিতে এলাকাবাসির সাথে রিপনের পক্ষের লোকজনের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া হয়। 

ক্রমেই পরিস্থিতি ঘোলাটে রূপ নেয়। খবর পেয়ে মেলান্দহ থানা পুলিশ ১১মার্চ দুপুরের দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে আটক রিপনকে উদ্ধার করে। 

এ ব্যাপারে ওই গৃহবধু এবং রিপন কোন মন্তব্য করেনি। তবে রিপনের বাবা আবুল কাশেম মেম্বার জানান-ওই গৃহবধু আমার ছেলেকে রাতে ডেকে নিয়েছে। পুলিশের মাধ্যমে রিপনকে উদ্ধার করেছি।

এলাকাবাসি জানান-তাদের মধ্যে অনেক দিনের পরকিয়া চলছিল। স্থানীয় ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম জানান-আমিও লোকমুখে এমন কথা শুনেছি।

উদ্ধার টিমের উপপুলিশ পরিদর্শক আবুল কাশেম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন-তাৎক্ষণিক পরিস্থিতি আগে সামাল দিয়েছি। গৃহবধুকে মামলা দিতে থানায় আসেত বলেছি। 

বিকেল ৫টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অফিসার ইনচার্জ ময়নুল ইসলাম জানান-আমাদের কাছে এখনো কোন পক্ষ মামলা দেয়নি। মামলা দিলে অবশ্যই ব্যবস্থা নিব।
  



শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।